আঙুল ফোটান? ভয়ঙ্কর বিপদ হতে পারে

আঙুল ফোটান? ভয়ঙ্কর বিপদ হতে পারে

আমাদের সকলেরই কম-বেশি আঙ্গুল ফোটানোর অভ্যেস আছে৷ কাজের ফাঁকে বা অবসর সময়ে আঙুল ফোটানের কাজটা অনেকেই করে থাকেন৷ কিন্তু জানেন কি এই অভ্যেস আপনার কত বড় বিপদ ডেকে আনছে?

জানা গিয়েছে, আঙুল ফোটানোর সময় আঙুলের হাড়ের সংযোগস্থলে যে তরল জমে থাকে তাতে গ্যাসের গহ্বর সৃষ্টি হয়৷ পরবর্তী সময়ে তা ধীরে ধীরে তা এক গর্তে রুপান্তরিত হয়৷ এবং পরবর্তীকালে এর থেকেই সেই গিঁটে ধরতে পারে ফাটল৷
 
গবেষকরা জানিয়েছিলেন, আঙুল ফোটানোর শব্দ হয় হাড়ের সংযোগস্থলে গ্যাসের বুদ্বুদ গঠনের কারণে। তবে এই বিপক্ষে মতও আছে। অনেকে বলেন, হাড়ের সংযোগস্থলের ফাঁকা অংশে জমে থাকা তরল বুদ্বুদ ধ্বংসের ফলে এই শব্দের সৃষ্টি হয়।

কিন্তু পরবর্তীকালে অত্যাধুনিক ভিডিওতে ধরা পড়ে যে, ক্র্যাকিং এবং জয়েন্টের বিচ্ছেদের ফলে দ্রুত জমে থাকা তরলের মধ্যে গ্যাস ভরা গহ্বর সৃষ্টি হয় এই পিচ্ছিল তরল পদার্থ জয়েন্টগুলোকে আবৃত করে রাখে।

এক বিজ্ঞানীর মতে, আমাদের সন্ধি গুলো হঠাৎ আলাদা হলে, ওই সময় সেখানে কোনও তরল পদার্থ অবশিষ্ট থাকে না। এসময় একটি ক্ষত সৃষ্টি হয় এতেই সৃষ্টি হয় শব্দ। চাপের ফলে উৎপন্ন শক্তি হাড়ের কঠিন পৃষ্ঠতলের খুবই ক্ষতি করে থাকে। পরবর্তিতে এর থেকে গিঁটে ফাটল ধরতে পারে।