ট্রাম্প-কিম বৈঠক সম্পন্ন, সইও  হল ট্রাম্প কার্ডে

ট্রাম্প-কিম বৈঠক সম্পন্ন, সইও  হল ট্রাম্প কার্ডে

'অসম্ভব'কেই মঙ্গলবার দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে 'সম্ভব' করে দেখিয়েছেন দুই 'বদমেজাজি' রাষ্ট্রনেতাই। তাঁদের মতিগতির উপর যাঁরা এতদিন ভরসা করতে ভয় পেতেন, এ দিনের বৈঠকের পর তাঁরাই আশ্বস্ত হয়ে বলছেন, “এটি ঐতিহাসিক বৈঠক।”

বৈঠক শেষে কিম জানান, সারা বিশ্ব একটা বড় পরিবর্তন দেখতে পাবে। দুপক্ষের মধ্যে ছয়মাস আগেও সম্পর্ক খুবই খারাপ ছিল।অন্যদিকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ডিনিউক্লিয়ারাইজেশন প্রক্রিয়া শীঘ্রই শুরু হবে। চিনের সংবাদসংস্থা পিপলস ডেইলিতে এমনটাই বলা হয়েছে।

দুপক্ষের যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে, তার বিষয়বস্তু এখনও কিছু জানা যায়নি। তবে ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি বিস্তারিত বলবেন সাংবাদিক সম্মেলনে।সিঙ্গাপুরের সেন্টোসা দ্বীপের কাপেল্লা হোটেলে ট্রাম্পও কিমের বৈঠক হয়৷ ভারতীয় সময় সকাল ৭ নাগাদ শুরু হয় বৈঠক৷ প্রায় ৪৮ মিনিট চলে আলোচনা৷ অলোচনার প্রধান্য পেয়েছে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়টি৷ এছাড়াও বাণিজ্য ও নিরাপত্তার বিষয়ও গুরুত্ব পায়৷

অনেক বাধা বিপত্তি পেরিয়ে এই বৈঠক হচ্ছে, বৈঠক শুরু আগে জানিয়েছিলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বচ্চ নেতা৷ তাঁদের সম্পর্ক অসাধারণ, এই বিষয় কোন দ্বিমত নেই বলেই বৈঠক শুরুর আগে মন্তব্য করেছিলেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

 

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ কতটা অনিবার্য বিশ্বের কাছে, সেটা বোঝাতে এদিন কিমের সামনে ট্রাম্প বারবার জোর দেন একটাই শব্দের উপর। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন , “  উই আর স্টার্টিং দ্যাট প্রসেস ভেরি কুইকলি, ভেরি ভেরি কুইকলি, অ্যাবসোলিউটলি।” কিম সে বিষয়ে আশ্বস্তও করেছেন। উত্তর কোরিয়ার প্রধান এই বৈঠককে ঐতিহাসিক আখ্যা দিয়ে বলেন, 'অতীতের ভুলত্রুটি মিটিয়ে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করছি আমরা। এবার আমূল পরিবর্তন দেখবে বিশ্ব।'