পর্নস্টারের সঙ্গে ট্রাম্পের যৌন কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে এল, অপরাধ ঢাকতে বিপুল ডলার প্রতিশ্রুতি

পর্নস্টারের সঙ্গে ট্রাম্পের যৌন কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে এল, অপরাধ ঢাকতে বিপুল ডলার প্রতিশ্রুতি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড চ্রাম্পের সঙ্গে বিখ্যত পর্নস্টারের যৌন কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে এল, মার্কিন ওই পর্নস্টারের দাবি, তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল ট্রাম্পের। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে মুখ বন্ধ করার জন্য তাঁকে মোটা টাকা দেন ট্রাম্প। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে ওই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর বেশ হইচই শুরু করেছেন ট্রাম্প বিরোধীরা।

স্টরমি ড্যানিয়েলস নামে এক পর্ন তারকাকে ২০১৬ সালের মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প মুখ বন্ধ রাখতে ১ লক্ষ ৩০ হাজার ডলার ঘুষ দেন। এক যুগ আগে এক যৌনকেচ্ছার প্রেক্ষিতে এই টাকা স্টরমিকে দেওয়া হয় বলে দাবি করা হয়েছে এক রিপোর্টে। এই টাকা ট্রাম্পের অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছ থেকে স্টরমি পেয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে রিপোর্টে। যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে মুখ খোলেননি স্টরমি। গোটা রিপোর্টই জঞ্জাল বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প।
যদিও গোটা বিষয়টিকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ওই আইনজীবী৷ একই দাবি সেই পর্ণস্টারেরও৷ পর্ণ দুনিয়ায় তাকে সবাই স্ট্রোরমি ডানিয়েল নামে চেনে৷ ডনের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক নিয়ে তার প্রতিক্রিয়া, ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে যদি আমার যৌন সম্পর্ক থাকত তাহলে এতদিনে লোকে আমার বই পড়ে জানতে পারত৷অন্যদিকে হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে খবরের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে৷

স্টেফানি ক্লিফোর্ড নামে এক মার্কিন পর্নস্টার দাবি করেছেন, ২০০৬ সালে তার সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের শারীরিক সম্পর্ক হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি নামি গল্ফ টুর্নামেন্টে তাঁর সঙ্গে ট্রাম্পের সাক্ষাত হয়েছিল। সেখানেই ওই কাণ্ড করেন ট্রাম্প। প্রসঙ্গত, ওই ঘটনার এক বছর আগেই ট্রাম্প তাঁর বর্তমান স্ত্রী মেলানিয়াকে বিয়ে করে ফেলেছেন।