জার্কাতার দুর্ঘটনাগ্রস্থ বিমানের পাইলটের দায়িত্বে ছিলেন দিল্লীর যুবক

জার্কাতার দুর্ঘটনাগ্রস্থ বিমানের পাইলটের দায়িত্বে ছিলেন দিল্লীর যুবক

সোমবার ভোরে মর্মান্তিক বিমান দুর্ঘটনায় সামনে এল এক বড় তথ্য৷ জানা গিয়েছে, বিমানের দুজন পাইলটের মধ্যে একজন ছিলেন ভারতীয়৷ ভব্য সুনাজা নামে ওই যুবক গত ৭ বছর ধরে লায়ন এয়ারের সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গিয়েছে। তাঁর ৬,০০০ ঘণ্টা বিমান ওড়ানোর অভিজ্ঞতা ছিল বলেও জানিয়েছে লায়ন এয়ার। যে বিমানটি ভেঙে পড়েছে সেই বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ওড়ানোর বিশেষ প্রশিক্ষণ ছিল ভব্যর। তাছাড়া দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটিকে একেবারে নতুন বললেও ভুল বলা হয় না। বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স বিমানটি চলতি বছরের অগাস্টে আকাশে ওড়া শুরু করে।

জানা গিয়েছে, গত ১১ বছর ধরে ভব্য নায়ন এয়ারের সঙ্গে কাজ করছিলেন৷ দিল্লির ময়ূরবিহারে তাঁর বাড়ি৷ অ্যালকন পাবলিক স্কুল থেকে তাঁর পড়াশোনা৷ ২০০৯ সালে পাইলটের লাইসেন্স পেয়েছিলেন তিনি৷ কেরিয়ারের শুরুতে তিনি এমিরেটস-এর সঙ্গে ছিলেন৷ পরে লায়ন এয়ারের সঙ্গে যুক্ত হন৷ কিছুদিন আগেই তিনি দিল্লিতে পোস্টিং চেয়ে সংস্থায় আবেদন জানিয়েছিলেন৷

জাকার্তা থেকে প্যাঙ্গকাল পিনানংএর উদ্দেশে রওনা হওয়া এই বিমান দুর্ঘটনাগ্রস্ত হওয়ায় যাত্রী বা সওয়ারীদের মধ্যে কেই বেঁচে রয়েছেন কী না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। প্রসঙ্গত,স্থানীয় সময় ৬.২১ মিনিটে গ্রেটার জাকার্তার তাঞ্জেরাং-এ সুকর্ন হাত্তা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানটি উড়েছিল বলে জানা গিয়েছে। সকাল ৭.৩০-এর বিমানটি পঙ্কাল পিনাং-এ নামার কথা ছিল। ইন্দোনেশিয়ার বাঙ্কা দ্বীপের পঙ্কাল পিনাং হল বৃহত্তম শহর।দুর্ঘটনার পিছনে খারাপ আবহাওয়াই কারণ, তা এখনও পর্যন্ত নির্দিষ্ট করা হয়নি।