পাকিস্তানের প্রথম শিখ পুলিশকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ

পাকিস্তানের প্রথম শিখ পুলিশকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ

পাকিস্তানের প্রথম শিখ পুলিশ অফিসারের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে জোড় করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল ETPB (ইভাকিউ ট্রাস্ট প্রপার্টি বোর্ড)-এর বিরুদ্ধে। ETBP হল পাকিস্তানের শিখ সংগঠন PSGPC (পাকিস্তান শিখ গুরুদ্বয়ারা পরবন্ধক কমিটি)-র পেরেন্ট বডি।

ফেসবুকে আপলোড হওয়া এই ভিডিও-তে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন গুলাব। জানিয়েছেন, স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে তিনি এখন রাস্তায় জীবন কাটাচ্ছেন। তাঁর বাড়িতে জোর করে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এমনকী, তাঁর পাগড়িটা এবং চপ্পলও নিতে দেওয়া হয়নি। প্রকাশ্যে পাগড়ি ছাড়া তাঁকে চুল খুলে রাখতে হয়েছে। একজন শিখ ধর্মালম্বির কাছে এটা ঘোর পাপ বলেও জানিয়েছেন তিনি।এতে পাক সরকারের বিরুদ্ধে শিখ নিধনের অভিযোগ তুলেছেন পুলিশ অফিসার গুলাব। তাঁর অভিযোগ, পাক সরকারের নীতির জন্য তাঁকে এবং তাঁর পরিবারকে বাড়ি থেকে উৎখাত করা হয়েছে।

গুলাব সিংহ জানিয়েছেন ১৯৪৭ সাল থেকেই ওই বাড়িতে থাকতেন  তাঁর পরিবার । সঠিক সময়ে বাড়িভাড়াও মিটিয়ে এসেছেন তাঁরা । কেন নোটিশ পাঠিয়ে বাড়ি খালি করার কথা বলা হয়নি, সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি ।

পাকিস্তানে বেশ কিছু বছর ধরেই বেড়েছে হিংসামূলক অপরাধ । এই ঘটনা সেই বিষয়টিকে আরও একবার সামনে আনল ।

 

গুলাব সিংয়ের দাবি, এই ঘটনার মূলচক্রী PSGPC-এর প্রেসিডেন্ট তারা সিং। তাঁর কথাতেই এই কাজ করা হয়েছে। তিনি পাকিস্তানে তাঁর সঙ্গে ঘটা এই ঘটনার দিকে নজর দেওয়ার অনুরোধ করেছেন গোটা বিশ্বের সব শিখদের। বলেছেন, 'আমার অনুরোধ সকলে এই ভিডিও শেয়ার করুন। বিশ্বের নজরে আনুন যে পাকিস্তানে শিখদের সঙ্গে কীরকম ব্যবহার করা হয়।'