আমেরিকা ও উত্তরকোরিয়ার বৈঠকে বাধা

আমেরিকা ও উত্তরকোরিয়ার বৈঠকে বাধা

প্রশ্ন উঠে গেল প্রস্তাবিত আমেরিকা-উত্তর কোরিয়া বৈঠক নিয়ে। বাধ সাধল উত্তর কোরিয়া। প্রথম থেকেই পরমাণু নিরস্ত্রীকরণকে বৈঠকের প্রধান শর্ত বলে জেনেও হঠাত এখন তারা বলছে যদি তাদের 'একতরফাভাবে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ'-এর জন্য চাপ দেওয়া হয়, তাহলে তারা বৈঠকে যাবে না। উত্তর কোরিয়ার বিদেশ মন্ত্রকের ফার্স্ট ভাইস মিনিস্টার কিম কে গন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, 'পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের নামে উত্তর কোরিয়াকে কোণঠাসা করার চেষ্টা হলে মানা হবে না। অর্থের বিনিময়ে এরতরফা কোনও পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের পথে হাঁটবে না উত্তর কোরিয়া'

বলা হয়, 'দক্ষিণ কোরিয়াজুড়ে চলা এই মহড়ার নিশানা আমরাই। এই মহড়া পানমুনজোম ঘোষণাবিরোধী ও আন্তর্জাতিক সামরিক উস্কানি। মহড়াটি কোরিয় উপদ্বীপে চলমান ইতিবাচক রাজনৈতিক অগ্রগতির প্রতিপন্থী।' প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, 'দক্ষিণ কোরিয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যৌথভাবে এই সামরিক উস্কানি দেওয়ার পর সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে উত্তর কোরিয়ার আরও সতর্ক পদক্ষেপ নেবে।' পিয়ংইয়ংয়ের এমন সতর্কতার পরও আমেরিকার বিদেশ দফতর বলে, পরিকল্পনা মতোই তারা আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে বৈঠকে যাবে।