বিশ্বের সবথেকে দামি ফোন

বিশ্বের সবথেকে দামি ফোন

 ফোন ছাড়া দুনিয়া অচল। একসময়ে মোবাইল খুই দুর্লভ হলেও আজকের দুনিয়ায় মোবাইলের এক টাচে গোটা বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়।ক্যামেরা থেকে প্রযুক্তি নির্ভর কাজ সবই করা যায় এই চলভাষের মাধ্যমে। অনেকদিন আগে মোবাইল কেনার সামর্থ্য না থাকলেও এখন প্রত্যেকের হাতে একটি দুটি বা তিনটি করে ফোন থাকা কোনো ব্যাপারই নয়। এখন সাধারন ফোন ছেড়ে সকলেরই নজর স্মার্টফোনে। প্রযুক্তির যুগে নিজের ব্যক্তিগত মনোভাবকে দৃষ্টিনন্দন করে তুলতে যার গুরু্ব অনেক।

অনেক মোবাইল কোম্পানিই দামি দামি ফোন বাজারে নিয়ে এসেছে। তবে বিশ্বের দামি মোবাইলের তালিকায় কোন কোন মোবাইল রয়েছে তা একবার দেখে নিন-

১. ডায়মন্ড ফোর আইফোন ফোর- আইফোনের দর বরাবরই বেশি। কারোর কাছে থাকা মানে সে অনেক প্রভাবশালী এটাই মনে করা হয়। বিশ্বের সবথেকে দামি মোবাইলের তালিকায় প্রথমেই স্থান করেছে এই ফোনটি। সোনা ও প্ল্যাটিনাম দিয়ে তৈরি ফোনটির অ্যাপেল লোগোতে হীরের ছোয়া মেলে। দাম আট মিলিয়ন ডলার।

২. সুপ্রিম গোল্ডস্টিকার আইফোন থ্রিজি- অ্যাপল আইফোনের এই ফোনটি বিশ্বের দামি ফোনের তালিকায় দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে। আজ থেকে প্রায় নয় বছর আগে বাজারে এসেছে। সোনা, হীরকের ছোয়ায় এই ফোনটির বাজার দর 3.2 মিলিয়ন ডলার।

৩.আইফোন থ্রিজি কিংস বাটন- হোয়াইট, রোজ, ইয়োলে গোল্ডের সনম্বয়ে তৈরি এই ফোনটির ডিজাইন করেছেন অষ্ট্রিয়ার এক ডিজাইনার। বহুমূল্য হীরার সমন্বয়ে তৈরি এই ফোনটির বাজার মূল্য 2.4 মিলিয়ন ডলার।

৪.গোল্ডভিশ লা মিলিয়ন- 2006 সালে বিশ্বের সবথেকে দামি ফোন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা এই ফোনটির ডিজাইনার সুইত্জারল্যান্ডের বিখ্যাত ডিজাইনার অমানুয়েল গেট। ১৮ ক্যারেট স্বর্ন ও ১২০ ক্যারেট ডায়মন্ড দিয়ে তৈরি ফোনটির বাজার মূল্য 1.4 মিলিয়ন ডলার।

৫. ডায়মন্ড ক্রিপটো স্মার্টফোন- সাদা গোলাপি বর্নের সোনা, দশটি নীল বর্নের হীরা সহ আরও চল্লিশটি হীরার সমন্বয়ে তৈরি এই ফোনটি বিশ্বের দামি ফোনের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে। যার দাম 1.3 মিলিয়ন ডলার।