আধার নম্বরকে আরও সুরক্ষিত করতে ভার্চুয়াল নম্বর

আধার নম্বরকে আরও সুরক্ষিত করতে ভার্চুয়াল নম্বর

নিজস্ব তথ্য গোপন রাখার বিষয়টিকে আরও আঁটোসাঁটো করতে ভার্চুয়াল নম্বর আনতে চলেছে কেন্দ্র। আধারের গোপন তথ্য যাতে কোনো ভাবেই চুরি না হয় তার প্রাণপন চেষ্টায় ব্রতী হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যদিও আধারের থেকে ব্যক্তির গোপনীয়তা আর কিছু নেই বলেও দাবি করেছে কেন্দ্র, কিন্তু বর্তমানে আধারকেও জাল করে রমরমিয়ে চলছে জাল কারবার। তাই সেই ব্যবস্থা রুখতে আরও সজাগ থাকতে চায় মোদী সরকার।

ভোটের কার্ড জাল করা খুব সহজ হওয়ায় ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ঠেকাতে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল চার বছর আগে। আধারা কার্ড করার সময় আঙুলের ছাপ, চোখের রেটিনার ছবি,নিজস্ব চিত্র সহ অন্যান্য প্রমানাদি সংগ্রেহ করেছিল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তাতেও যেন মন মানছে না তাই ভার্চুয়াল নম্বর চালু করার ঘোষনা।

বর্তমানে ডিডিটাইজেশনের যুগে ব্যাঙ্কের বই থেকে সিম কার্ড সর্বত্রই আধার নম্বর লিঙ্ক বাধ্যতামূলক। সেই সময় ব্যাক্তিগত গোপনীয়তা চুরি না হওয়ার কিছুই নেই এমনটাই মনে করছে সরকার। তাই 12 অঙ্কের আধারের বদলে 16 অঙ্কের ভার্চুয়াল নম্বর দিয়ে গোপনীয়তা রক্ষা করেই যাতে সমস্ত কাজ হাসিল করা যায় তারই চেষ্টা চলছে জোর কদমে।

এই ভার্চুয়াল নম্বর আসলে কি?

আধারের মতোই ভার্চুয়াল নম্বর। কিন্তু এটি আধারের থেকে চারটে সংখ্যা বেশির একটি নম্বর। যা ব্যক্তির ছবি, নাম ঠিকানা নিশ্চিত করা ছাড়া আর কিছুই তথ্য দিতে পারেনা। ফলে অনেযের কাছে গোপন তথ্য  ফাঁস হওয়ার আশঙ্কা কম।

কিভাবে মিলবে ভার্চুয়াল নম্বর-

যাদের আধার নম্বর রয়েছে তারাই ইউআইডিএআই-এর ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজেরাই ভার্চুয়াল নম্বর পেতে পারেন। প্রত্যেকটি আধার নম্বরের জন্য আলাদা আলাদা ভর্চুয়াল নম্বর আছে। তাই আধার গ্রাহকরা ওয়েবসাইটে গিয়ে আধার নম্বর দিলেই মিলবে ষোলে অঙ্কের ভার্চুয়াল নম্বর। তবে ভার্চুয়াল নম্বর জানা মানেই কিন্তু যে কেউ কোনো ব্যক্তির আধার নম্বর জানতে পারবেন না।

তবে মনে রাখবেন, ভার্চুয়াল নম্বর কিন্তু স্থায়ী নম্বর নয় । নির্দিষ্ট সময় অন্তুর তা বদলে যাবে। এটিএম কার্ডের নম্বর বদলানোর মতো  নিজেও ভার্চুয়াল নম্বর বদল করতে পারা যাবে ইউআইডিএআই-এর ওয়েবসাইটে ঢুকে। চলতি বছরের ১লা জুন থেকে আধারের বদলে ভার্চুয়াল নম্বর কার্যকর করতে চলেছে কেন্দ্র।