মোমোর পর এবার গ্র্যানি

মোমোর পর এবার গ্র্যানি

মোমো গেম-এর আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই মোবাইলে হাজির গ্র্যানি, এই গেমের খপ্পরে পড়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে ৩ স্কুলছাত্র। অস্বাভাবিক আচরণ করছে ওই ছাত্ররা। কেউ বাড়ির লোককে মারধর করছে। আবার কেউ নিজেই মরে যেতে চাউছে। ঘটনাটি ঘটেছে সেই জলপাইগুড়িতেই। প্রসঙ্গত, রাজ্যে মোমোর প্রথম মেসেজ পান জলপাইগুড়িরই এক কলেজছাত্রী।

হাতিরবাড়ি গ্রামেই বাড়ি স্কুলপড়ুয়া সুকুমার রায়ের৷ সুকুমার জানিয়েছে, তার স্মার্টফোনটিতে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ চললেও ব্লু হোয়েল, মোমো নিয়ে রীতিমত সতর্ক ছিল সে৷এরপর থেকে নাকি তার মোবাইলে ভৌতিক সব কাণ্ডকারখানা ঘটছে৷ রীতিমত ভয় পেয়ে যায় সে৷ আতঙ্ক এতটাই যে জ্বরে পড়ে সে৷ সুকুমার এতটাই ভয় পেয়ে যায় যে নিজের মোবাইলটি আছাড় মেরে ভেঙে ফেলে একই ঘটনার শিকার হাতিরবাড়ির বাসিন্দা শিবু লোহার।

বাড়ির লোকেরা জানিয়েছেন, অস্বাভাবিক আচরণ করতে শুরু করে ওই ৩ ছাত্র। কেউ বাড়ির লোকজনদের ধরেই মারধর করে। কেউ আবার নিজেই আত্মহত্যা করতে চায়।