রকেট উত্ক্ষেপনের পরই যান্ত্রিক গোলযোগ, কোনোক্রমে প্রাণে বাঁচলেন দুই মহাকাশযাত্রী

রকেট উত্ক্ষেপনের পরই যান্ত্রিক গোলযোগ, কোনোক্রমে প্রাণে বাঁচলেন দুই মহাকাশযাত্রী

আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে যাওয়ার পথে বরাতজোরে প্রাণে বাঁচলেন দুই মহাকাশচারী। কাজাখস্তানের বইখানুর কসমোড্রম থেকে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে (International Space Station) যাওয়ার জন্য সয়ুজ মহাকাশযানে চড়ে রওনা দিয়েছিলেন রাশিয়ার মহাকাশচারী অ্যালেক্সেই ওভচিনিন ও অ্যামেরিকার নভশ্চর নিক হেগ।এদিন সয়ুজে চড়ে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন তাঁরা। উত্ক্ষেপণের প্রথম পর্ব ঠিক মতো মিটলেও বিপত্তি বাধে তার পরেই। কাজ করেনি রকেটের দ্বিতীয় অংশ। গোলমাল বুঝে রকেটের জরুরি ব্যবস্থা চালু করেন মহাকাশচারীরা। ব্যালেস্টিক মন্দন প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে মহাকাশযানের গতিমুখ বদলে পৃথিবীতে ফিরে আসেন তাঁরা। বইখানুর থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে মরুভূমিতে অবতরণ করে তাঁদের যান। দুই মহাকাশচারীই অক্ষত রয়েছেন বলে জানিয়েছে রসকসমস। 

ব্যালেস্টিক মন্দন প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে মহাকাশযানের গতিমুখ বদলে পৃথিবীতে ফিরে আসেন তাঁরা। বইখানুর থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে মরুভূমিতে অবতরণ করে তাঁদের যান। দুই মহাকাশচারীই অক্ষত রয়েছেন বলে জানিয়েছে রসকসমস। মহাকাশযানটিকে 'ব্যালিস্টিক ডিসেন্ট মডে' পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনা হয় বলে জানিয়েছে অ্যামেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা NASA।