এই প্রথম চাঁদের বিপরীত দিকে অভিযানে যাচ্ছে কোনো দেশ

এই প্রথম চাঁদের বিপরীত দিকে অভিযানে যাচ্ছে কোনো দেশ

চাঁদে যাওয়ার প্রচেষ্টায় বিজ্ঞানীরা সফল, কিন্তু চাঁদের সম্বন্ধে জানার শেষ নেই বা জানার আগ্রহের শেষ নেই বিজ্ঞানীদের মধ্যে, কয়েকদিন আগে চাঁদে বাড়ি ও মার্কেট তৈরির পরকল্পনাও শেষ হয়েছে এবার হয়তো সেই মিশনও শুরু হবে কিন্তু তার আগেই চিনের স্পেসের অন্যধরনের মিশনের কথা তাক লাগিয়ে দিচ্ছে বিশ্ববাসীকে, এবার চাঁদে নয় চাঁদের পৃষ্ঠদেশ অভিযান করবে চিন, চাঁদের যে দিকটি নিয়ে এখনও পরীক্ষানিরীক্ষা হয়নি, সেটি নিয়েই এবার গবেষণা চালাবে তারা৷

চাঁদে যাত্রী পাঠানোর পর চিনের লক্ষ্যভেদ এখন অব্যাহত, এর আগে কখনও কোনও দেশ এমন কোনও পদক্ষেপ নেয়নি৷ এর ফলে আমেরিকা ও সোভিয়েত ইউনিয়নকে ছাড়িয়ে যাবে চিন৷ তৈরি করবে ইতিহাস৷ স্পেস অ্যানালিস্ট ও লেখক ব্রিয়ান হার্ভের মতে, এই মিশনের ফলে চিনারা অনেকটা এগিয়ে যাবে৷একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশ ২০১৮ সালের জুন মাসে চ্যাং ৪ নামে চাঁদের মাটিতে৷ চাঁদের ৬০ হাজার কিলোমিটার পৃষ্ঠদেশের ছবি তুলবে এই স্যাটেলাইটটি৷

তবে চাঁদের পৃষ্ঠদেশ পরীক্ষানীরিক্ষার বিষয়টি সত্যিই বেশ সাড়া ফেলে বিজ্ঞানী মহলে, সাধারন মানুষের মধ্যেও পৃষ্ঠদেশ সম্পর্কে জানার আগ্রহের শেষ ছিল না এবারে সেই রহস্যভেদ  করতেই চিনা স্পেসের নবতম পরিক্লপনা