যৌন হেনস্থার কাজে রুখে নোবেল পেলেন চিকিত্সক ও মানবাধিকার কর্মী

যৌন হেনস্থার কাজে রুখে নোবেল পেলেন চিকিত্সক ও মানবাধিকার কর্মী

যুদ্ধক্ষেত্রে মহিলাদের উপর যৌন হেনস্থা রোখার কাজে অগ্রণী ভূমিকার জন্য ২০১৮ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেলেন কঙ্গোর চিকিৎসক ডেনিস মুকওয়েজ় ও ইয়াজিদি মানবাধিকার কর্মী নাদিয়া মুরাদ।চলতি বছরে এযাবৎকালের দ্বিতীয় সর্বাধিক নোবেল প্রাপকের দাবীদারের নাম উঠে আসে। এবছর ৩৩১ জন মনোনীত হন। এর মধ্যে ২১৬ জন স্বতন্ত্র ব্যক্তি এবং ১১৫টি সংস্থার নাম উঠে আসে। মনোনীত ব্যক্তি বা সংস্থার নাম ৫০ বছরের আগে প্রকাশ্যে আনা যায় না, এটাই নিয়ম। নোবেল শান্তি পুরস্কার চলতি মাসের চতুর্থ নোবেল পুরস্কার।

জীবনের বেশিরভাগ সময়ই যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন যারা তাঁদের চিকিৎসা করে সুস্থ করে তুলেছেন । যুদ্ধ নিপীড়িত কঙ্গোর বিভিন্ন প্রান্তে তিনি ও তাঁর চিকিৎসক দলকে নিয়ে নিরন্তরভাবে কাজ চালিয়ে গিয়েছেন মুকওয়েজে ।

অন্যদিকে নাদিয়া হলেন ৩,০০০ ইয়াজিদী তরুণীদের একজন যাদের অপহরণ করে দিনের পর দিন নির্মম ভাবে যৌন নিপীড়ন চালিয়েছে ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিরা । ইসলামিক স্টেট ধারাবাহিক ভাবেই ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনকে হাতিয়ার করে থাকে ভীতি সঞ্চারের জন্য ।

 

নোবেল কমিটি এক বিবৃতিতে জানায়, 'ডেনিস মুকওয়েজ ও নাদিয়া মুরাদ দুজনেই নিজস্ব নিরাপত্তার পরোয়া না করে আক্রান্ত মহিলাদের উদ্ধার করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তাঁরা আক্রান্তদের সুবিচার পাওয়ার জন্য লড়াই করেন।'