অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আইন মেনে তালাক দিলেন বরেলির দুই মহিলা

অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আইন মেনে তালাক দিলেন বরেলির দুই মহিলা

তিন তালাক প্রথা তুলে দিয়ে মুসলিম মহিলাদের ক্ষমতায়নে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে মোদী সরকার৷ তাই আর অত্যাচার সহ্য করা নয়৷ আইনের বলেই বিবাহের সম্পর্ক ছিন্ন করলেন উত্তরপ্রদেশের দুই মহিলা৷ জানা গিয়েছে, আইনের তালাক-ই-তাফিজকে ব্যবহার করে বিবাদ বিচ্ছেদ করেছেন তাঁরা৷ বরেলির একটি আদালতে এই মামলা ওঠে৷

একজন মহিলা, নাম নিশা হামিদ৷ তাঁর স্বামী জাভেদ আনসারির সঙ্গে দীর্ঘ ১৩ বছরের সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটালেন৷ তাঁর আইনজীবী কাজি জুবের আহমেদ জানান, শ্বশুরবাড়িতে দিনের পর দিন প্রবল অত্যাচার চালানো হত নিশার উপরে৷ স্বামী, জাভেদ আনসারিকে জানানো হলেও কোনও সুরাহা করতে পারেনি সে৷ ফলে দীর্ঘ ১৩ বছর মুখ বন্ধ করে সহ্য করার পর, বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন তাঁর মক্কেল৷ 

কেবল নিশাই নয়, একই ধরনের আরও একটি ঘটনা, একই দিনে ঘটেছে ওই আদালতে৷ ২০১৪-তে বাড়ির অমতে পালিয়ে বিয়ে গিয়ে আরবাজকে বিয়ে করেছিল ইয়াসমিন৷ বরেলির একই গ্রামের থাকত তারা, সেখান থেকেই ভালোবাসা শুরু তাঁদের হয়েছিল৷ পরে পঞ্চায়েতের নিময় মেনে বিয়ে হয় তাদের৷ অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই তাঁর উপর অত্যাচার শুরু করেছিল আরবাজ৷বাপের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য ইয়াসমিনকে চাপ দেওয়া হত৷ তাই আর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিল ইয়াসমিন৷

এই দুই মহিলার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন অল মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের সদস্য খলিদ রশিদ মাহালি৷