অযোধ্যায় ইফতারের আয়োজন করলো আরএসএসের মুসলিম শাখা, হাজির ছিলেন ইন্দ্রেশ কুমারও

অযোধ্যায় ইফতারের আয়োজন করলো আরএসএসের মুসলিম শাখা, হাজির ছিলেন ইন্দ্রেশ কুমারও

দেশজুড়ে অসহিষ্ণুতা বেড়েই চলেছে, কিন্তু তার মধ্যেও সম্প্রীতির নজির স্থাপন করল রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ। আরএসএসের মুসলিম শাখা মুসলিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চ বুধবার অযোধ্যায় ইফতার পার্টির আয়োজন করল। এক জায়গায় বসে খেলেন বহু মানুষ। উল্লেখ্য, ২০০২-এ মুসলিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চ তৈরি করে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ। অযোধ্যা নিয়ে চাপানউতোরের মধ্যে স্থানীয় মুসলিমদের কাছে পৌঁছতে ও তাঁদের মন জয় করতে তৈরি করা হয় ওই সংগঠন। বুধবার অযোধ্যার বিশিষ্ট মুসলিম নাগরিকদের ইফতার পার্টিতে আমন্ত্রণ জানায় মুসলিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চ। তাঁদের মধ্যে ছিলেন বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির সংক্রান্ত মামলার প্রবীণতম মামলাকারী হাশিম আনসারির পুত্র ইকবাল আনসারি। দিনভর উপবাসের পর সকলে একসঙ্গে বসে খাবার খেলেন। আরএসএসের প্রতিনিধি হিসাবে ইন্দ্রেশ কুমার ও মোরারি দাস উপস্থিত ছিলেন ওই অনুষ্ঠানে। 
এই ইফতার পার্টির অন্যতম লক্ষ্যণীয় বিষয়, গরুর দুধ দিয়ে মুসলিমদের উপবাস ভঙ্গ। অনুষ্ঠানের অন্যতম উদ্যোক্তা ইন্দ্রেশ কুমার এর আগে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে একটি ইফতার পার্টিতে যোগ দিতে গিয়ে ' মাংস ' কে বিষাক্ত বলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ' আদম থেকে শুরু করে শেষ নবি, এমনকী মহম্মদের স্ত্রী আয়শাও গোস্ত খেতেন না। মাংস একধরনের রোগ। দুধ হল সেই রোগের একমাত্র ওষুধ। ' গো-হত্যার বিরুদ্ধে সমর্থন গড়ে তুলতে মুসলিম মঞ্চ নিয়মিত ইফতার পার্টির আয়োজন করে চলেছে দেশ জুড়ে।