ভারতে ফেরানো হবে দাউদ-ঘনিষ্ঠ সুপারি কিলার মুন্নাকে

ভারতে ফেরানো হবে দাউদ-ঘনিষ্ঠ সুপারি কিলার মুন্নাকে

ভারতে ফেরানো হবে দাউদ ঘনিষ্ঠ সুপারি কিলার সৈয়দ মুজ়াক্কির মুদাস্‌সর হুসেন ওরফে মুন্না ঝিঙ্গরা–কে। এমনটাই জানিয়ে দিল তাইল্যান্ডের আদালত। ভুয়ো পাকিস্তানি পাসপোর্ট ব্যবহার করে তাইল্যান্ডে ঢুকে গা ঢাকা দিয়েছিল দাউদের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ এই দুষ্কৃতী। আর এক মাফিয়া ছোটা রাজনকে হত্যা করার পরিকল্পনা ছিল তার। 

কিন্তু তাইল্যান্ড পুলিশের হাতে মুন্নাকে গ্রেপ্তার হওয়ার পর সেখানেই তার বিচার চলছিল। ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণে সক্রিয়ভাবে যোগাযোগ ছিল মুন্নার। এই বিস্ফোরণে জড়িত ছিল তার বাবাও। তারপরে পালিয়ে যাওয়ার পরে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-এর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চলতো মুন্না। যে কারণে মুন্না গ্রেপ্তার হওয়ার আগে থেকেই তার সাজা কমানোর জন্য তাইল্যান্ডের আদালতে আবেদন জানাতে শুরু করেছিল আইএসআই। শুধু তাই নয়,  মুন্নাকে তাদের হাতে তুলে দেওয়ার জন্যও আর্জি জানানো হয়। বিচারে প্রথমে ৩৬, পরে ১৮ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল মুন্নার। 

সাজার মেয়াদ শেষ হলে তাকে পাকিস্তানে পাঠানোর জন্য আবেদন জানায় তাইল্যান্ডে অবস্থিত পাকিস্তান মিশন। কিন্তু এর বিরোধিতা করে ভারত জানায়, মুন্না ভারতীয় নাগরিক। তাই ভারতেই ফেরাতে হবে মুন্নাকে। সেই দাবিই মেনে নিল তাইল্যান্ডের আদালত।