১১ বছরের বালিকাকে ধর্ষণ, জোড়া যাবজ্জীবন সাজা

১১ বছরের বালিকাকে ধর্ষণ, জোড়া যাবজ্জীবন সাজা

১১ বছরের বালিকাকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা পেলেন ৬৪ বছরের প্রৌঢ়। তামিলনাড়ুর তাঞ্জাভুর জেলার একটি মহিলা আদালত এই সাজা শুনিয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছিল ২০১২ সালে। রামায়ণ নামে ওই ব্যক্তি গ্রামেরই ১১ বছরের বালিকার সঙ্গে বন্ধুত্ব করেছিলেন। যার জেরে ওই ব্যক্তির শরীরে থাকা যৌন রোগের জীবাণু মেয়েতির শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। 

বালিকা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের লোকেরা। সেখানেই চিকিৎসকরা জানান বালিকাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এবং যার জেরে রামায়ণের শরীরে থাকা যৌন রোগ ছড়িয়ে পড়েছে বালিকার শরীরে। 

ঘটনা জানার পরেই নির্যাতিতার পরিবারের লোকেরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেই মামলার রায়দান ছিল বৃহস্পতিবার। পসকো আইনে মামলা দায়ের হয়। তামিলনাড়ুর বিশেষ মহিলা আদালতের বিচারক বালাকৃষ্ণন তাঁকে জোড়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনান এবং সেই সঙ্গে ২৫০০ টাকা জরিমানাও করেছেন।