ভুল করে মহিলাদের শৌচাগারে ঢুকে পড়লেন রাহুল গান্ধী, সোশ্যাল মিডিয়ায় বিদ্রুপ

ভুল করে মহিলাদের শৌচাগারে ঢুকে পড়লেন রাহুল গান্ধী, সোশ্যাল মিডিয়ায় বিদ্রুপ

মাঝে মাঝে নেটিজেনদের বিদ্রুপের মুখে পড়তে হয় কংগ্রেস সহ সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। এবার আরো একটি বিদ্রুপ। ভুল করে মহিলাদের শৌচাগারে ঢুকে পড়লেন রাহুল গান্ধী। প্রধানমন্ত্রীর রাজ্যে গিয়ে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছেন তিনি। তাঁর কথা শুনতে মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। একাধিক সভায় কংগ্রেস সহ সভাপতির বক্তব্যে সংগঠন আরো মজবুত হবে বলে মনে করছে গুজরাটের কংগ্রেস নেতৃত্ব। তবে গুজরাটে গিয়েই হলো নতুন বিপত্তি। ভুল করে ঢুকে পড়লেন মহিলাদের শৌচাগারে। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঠাট্টা হচ্ছে তাঁকে নিয়ে।
জানা গিয়েছে, গুজরাটের ছোটা উদয়পুর জেলায় গিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। উদয়পুরের টাউন হলে নতুন প্রজন্মের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রাহুল আলোচনা করছিলেন। আলোচনা শেষ হওয়ার পর তিনি শৌচাগারে যান কিন্তু ভুলবশত ঢুকে পড়েন মহিলাদের শৌচাগারে। কিন্তু ভুল বুঝতে পেরে দ্রুত বেরিয়ে এলেও বিতর্ক তাঁর পিছু ছাড়েনি। রাহুলের সঙ্গে সারাক্ষণ থাকেন এসপিজি। কংগ্রেস সহ-সভাপতি ভুল জায়গায় যাওয়ার পর কেন তাঁর সঙ্গে থাকা এসপিজি অফিসাররা বারণ করলেন না তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। 
কংগ্রেসের একটি সূত্র বলছে, শৌচাগারে পুরুষ বা মহিলার কোনও প্রতীক ছিল না। তাই বুঝতে অসুবিধা হয়েছে রাহুলের। তবে ওই শৌচালয়ের দরজায় চিহ্ন না থাকলেও গুজরাটি হরফে লেখা ছিল ' মহিলাও মাতে শৌচালয় '। নেটিজেনদের একাংশ এই বিষয়টি নিয়ে রাহুলকে বিঁধেছেন। তাদের বক্তব্য মহিলা কথাটা কী তা ভাষা না জানলেও বোঝা যায়। তুচ্ছ ভুল বলে বিষয়টি সরল করার চেষ্টা করা হলেও তা আদৌ ঠিক নয়। কারও অভিযোগ হয়তো সচেতনভাবেই রাহুল এই কাজ করতে পারেন।