মোদীর ফিটনেস চ্যালেঞ্জের জবাব দিলেন কুমারস্বামী

মোদীর ফিটনেস চ্যালেঞ্জের জবাব দিলেন কুমারস্বামী

ফিটনেস চ্যালেঞ্জ নিয়ে তোলপাড় জাতীয় রাজনীতি। কয়েকদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফিটনেস চ্যালেঞ্জ দিয়েছিলেন ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। এবার কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীকে ফিটনেস চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী! বুধবার নিজের ব্যায়ামের একটি ভিডিও পোস্ট করেই কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানালেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নিজেকে কিভাবে ফিট রাখেন তার খবর মোটামুটি পেয়েই যায় সাধারণ মানুষ। সকলেই হয়তো জানেন জে প্রধানমন্ত্রী যোগ ও শরীরচর্চা করে থাকেন। নিয়ম করে ব্যায়াম ও যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। আর গোটা দেশকেও শরীরচর্চার উপকারিতা কথা জানান বারবার। তিনি ক্ষমতায় আসার পরই বিশ্বজুড়ে পালিত হয় যোগ দিবস। 

আজ সোশ্যাল সাইটে নিজের শরীরচর্চার ভিডিও পোস্ট করে মোদী লিখেছেন, প্রকৃতির পঞ্চভূত ক্ষিতি, অপ, তেজ, মরুৎ, ব্যোমেই লুকিয়ে সবরকম শক্তি। আর তাই যোগ ছাড়াও প্রকৃতির এই পাঁচ উপাদানকে স্পর্শ করছেন তিনি। এতে শরীর দারুণ তরতাজা হয়ে ওঠে। ভিডিওটি পোস্ট করে ফিটনেসের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন তিনি। কিন্তু কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীকে ফিটনেস চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে কি প্রমান করতে চাইলেন মোদী?

তবে সে প্রশ্ন পরে। উল্লেখ্য, ফিটনেস চ্যালেঞ্জের জবাব দিয়েছেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়েও উন্নয়ন নিয়ে খোঁচা দিতে ছাড়েননি তিনি। কুমারস্বামী জানান, রোজ ট্রেডমিলে হাঁটার অভ্যাস রয়েছে তাঁর। তবে তাঁর কাছে ফিটনেস চ্যালেঞ্জের থেকেও বেশি গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যের উন্নয়ন। এর জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাহায্যই প্রয়োজন।

কুমারস্বামীর পাশাপাশি চলতি বছর কমনওয়েলথ গেমসে পদকজয়ী টেবলটেনিস তারকা মনিকা বাত্রা এবং আইপিএস অফিসারদের ফিটনেস চ্যালেঞ্জ করেছেন মোদী। আইপিএস অফিসারদের ক্ষেত্রে আবার উল্লেখ করে দিয়েছেন, চল্লিশোর্ধ্বদের এই চ্যালেঞ্জ নিতে দেখতে চান তিনি।