কেরলে জাহাজে বিস্ফোরণ, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ৫ কর্মী, অসুস্থ ১১

কেরলে জাহাজে বিস্ফোরণ, অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ৫ কর্মী, অসুস্থ ১১

কেরলে বাণিজ্যিক জাহাজে আগুন লেগে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটল। বিস্ফোরণে আগুনের জেরে জাহাজে থাকা পাঁচকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন ১১ জন। এদিন সকাল দশটা নাগাদ ভয়াবহ বিস্ফোরণটি ঘটে কোচি শিপইয়ার্ড সাগরভূষণ জাহাজে। মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, সাগরভূষণ জাহাজটি সারাইয়ের জন্য কোচির শিপইয়ার্ডে এসেছিল। মেরামতি চলাকালীনই বিস্ফোরণ ঘটে। জাহাজের মধ্যে থাকা একটি ট্যাঙ্কেই ঘটে বিস্ফোরণ। ট্যাঙ্কটির মালিকানা ওএনজিসির। বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গেই দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্যাঙ্কটিতে আগুন লেগে যায়। সেই সময় জাহাজে উপস্থিত থাকা কর্মীদের অধিকাংশ মেরমতির কাজ করছিলেন। ঘটানস্থলেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়। 

মৃতরা স্থানীয় রামশাদ, ভিবিন, কেভিন, পাথানামিথিত্তা এলাকার বাসিন্দা। আহত ১১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদের শরীরের সিংহভাগ পুড়ে যাওয়ায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 

এর্ণাকুলাম পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি দুর্ঘটনাগ্রস্ত সাগরভূষণ জাহাজটিতে কিছু ত্রুটি দেখা যায়। তাই বন্দরের শিপইয়ার্ডে সারাইয়ের কাজ চলছিল। সেই সময় কোনওভাবে জাহাজে থাকা ট্যাঙ্কে বিস্ফোরণটি ঘটে। তার জেরেই এই দুর্ঘটনা। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। তবে কী করে ট্যাঙ্কে বিস্ফোরণ ঘটল তা এখনও স্পষ্ট নয়। পূর্ণাঙ্গ তদন্তের পরই বিস্ফোরণের কারণ জানা যাবে। 

সাগরভূষণ মূলত পণ্য পরিবহণে নিযুক্ত ছিল। ১৯৮৭ সালে তৈরি হয় জাহাজটি। অন্যদিকে ১৯৭৮ সাল থেকে পরিষেবা দিয়ে আসছে কোচির এই শিপইয়ার্ড।