জনপ্রিয় পর্ন সাইটে ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে আসিফা!

জনপ্রিয় পর্ন সাইটে ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে আসিফা!

গণধর্ষণ করে শিশুকন্যাটিকে খুন করেছে কিছু পিশাচ৷ তীব্র যন্ত্রণা দিয়ে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে৷ পরিবার ভাবতেই পারেনি যে মন্দিরের ভেতরে এই জঘন্য অত্যাচার ঘটতে পারে, কারণ সেখানে তো ভগবানের বাস৷ আট দিন ধরে শিশুটিকে তিলে তিলে কষ্ট দিয়ে মেরে ফেলেছে৷ কাঠুয়ার ছোট্ট আসিফার জন্য বিচার চেয়ে দিকে দিকে চলছে আন্দোলন, চলছে প্রতিবাদ৷ অথচ সেই আসিফাই একটি পর্ন সাইটে ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে৷

গতকাল রবিবার, নববর্ষের দিন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাঘুরি করছে একটা স্ক্রিনশট৷ জনপ্রিয় এক পর্ন সাইটে ট্রেন্ডিংয়ের শীর্ষে আসিফা৷ আসিফা! যে মেয়েটি কিনা গোটা ভারতের ধর্ষিতা চেতনার সমতুল হয়ে দাঁড়িয়েছে, তার খোঁজ চলছে পর্ন সাইটে! প্রথম দেখায় তাই একটু অবাকই হতে হয়৷ মনে হতে পারে এ বোধহয় কোনও ফটোশপ করা ছবি৷ ফেক ছবির এই রমরমা বাজারে কেউ বা কারা বোধহয় এ গুজব রটিয়েছে৷ 

কিন্তু এটা যে সত্যি তার প্রমান মিলেছে ওই পর্ন সাইটটিতে৷ ভারতে ট্রেন্ডিংয়ের যে তালিকা, তার প্রথম নামটিই আসিফা৷ সেখান থেকে যে ভিডিও খুলছে তার সঙ্গে অবশ্য আসিফার কোনও সম্পর্ক নেই৷ সাধারণত সার্চ অপশনের উপর ভিত্তি করেই ট্রেন্ডিংয়ের তালিকা নির্ধারিত হয়৷ কখন কোন জিনিসটা আগে আসবে তা নির্ভর করে, ওই সাইটের ভিজিটরের রুচির উপর৷ এই সূত্র মানলে বুঝতে হয়, এই দেশেরই বহু মানুষ ওই সাইটটিতে আসিফার ধর্ষণের ভিডিও খুঁজেছে৷ এতটাই খোঁজ পড়েছে যে আসিফা নামটি ট্রেন্ডিংয়ের প্রথমে চলে এসেছে৷

আমাদের মানসিকতা ঠিক কোন জায়গায় পৌছেছে তার প্রমাণ দিচ্ছে এই ঘটনাটি৷ একটি ছোট মেয়ের ওপর বর্বর অত্যাচারের ভিডিও সার্চ করছে দেশের মানুষ৷ বিষয়টিকে বিনোদনের খোরাক হিসেবে দেখছে মানুষ৷