পরিবারের আর্জি, অন্য রাজ্যে সরানো হোক আসিফা গণধর্ষণ মামলা

পরিবারের আর্জি, অন্য রাজ্যে সরানো হোক আসিফা গণধর্ষণ মামলা

আসিফার জন্য সুবিচার চাইছে গোটা দেশ। এটা একটা ছবি অন্যদিকে আরও একটি ছবি দেখছেন দেশের মানুষ। খুন ও ধর্ষণে অভিযুক্তদের আড়াল করতে যথেষ্ট চেষ্টা চলছে সমান তালে। এমনকি তাদের সমর্থনে মিছিল পর্যন্ত বেরিয়েছে। মামলা থেকে সরে দাঁড়াতে আইনজীবীর উপর চাপ পর্যন্ত সৃষ্টি করছেন আইনজীবীরাই। এমতাবস্থায় আসিফা বানো গণধর্ষণ মামলা অন্য রাজ্যে সরানোর আজি জানাচ্ছে তার পরিবার।

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, পরিবারের পক্ষ থেকে এ দাবি করেছেন আইনজীবী। তাঁদের আশঙ্কা, জম্মুর এখন যা অবস্থা তাতে এই মামলা সুষ্ঠুভাবে নিষ্পত্তি হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে। আইনজীবীর উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। বাখরওয়াল সম্প্রদায়ের প্রতি বিদ্বেষ আছে বলে সাধারণ বাসিন্দাদের একাংশও বিক্ষুব্ধ। এই পরিস্থিতিতে এই মামলা কতখানি এগোবে তা নিয়ে সন্দেহ আইনজীবী ও আসিফার পরিবারের। তাঁদের অভিযোগ, ঠিকঠাকভাবে চার্জসিটই পেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। তাঁদের দাবি, এই মামলা জম্মু থেকে অন্য রাজ্যে সরানো হোক। সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই আবেদন জানাবেন তাঁরা।

এদিকে আসিফার জন্য বিচার চেয়ে গোটা দেশেই একাধিক মিছিল হচ্ছে। সকলের একটাই দাবি, অবিলম্বে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। পাশাপাশি মিছিলে যে দুই বিজেপি মন্ত্রীকে দেখা গিয়েছে, তাঁদের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ সাধারণ দেশবাসীর। লাল সিং ও চন্দ্রপ্রকাশ গঙ্গার নামেই এই অভিযোগ। প্রবল চাপের মুখে পদত্যাগ করেছেন লাল সিং। তাঁর দাবি, দলীয় নির্দেশেই তিনি ওই মিছিলে গিয়েছিলেন। তাঁর দাবি, স্থানীয় বাসিন্দারাই পুলিশের উপর সন্তুষ্ট ছিলেন না।