রাফাল ইস্যু নিয়ে সরব হলেন অটল-জমানার মন্ত্রীরাও

রাফাল ইস্যু নিয়ে সরব হলেন অটল-জমানার মন্ত্রীরাও

এ বার রাফাল নিয়ে সরাসরি নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন অটল বিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রিসভার সদস্যরাও। দাবি করলেন, বফর্সের থেকেও বড় দুর্নীতি রাফাল। যশবন্ত সিন্‌হা, অরুণ শৌরির মতো প্রাক্তন মন্ত্রীরা বুধবার দিল্লিতে রাফাল নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন। সঙ্গে প্রশান্ত ভূষণের মতো দুঁদে আইনজীবী। বফর্স নিয়ে এক সময় এই অরুণ শৌরিই সরব হয়েছিলেন। আজ তিনি বললেন, 'বফর্স তো কিছুই নয়। রাফাল বফর্সের থেকেও বড় দুর্নীতি।'

যশবন্ত সিনহা দাবি তুললেন তিন মাসের মধ্যে সিএজির ‘ফরেন্সিক অডিট’ করানোর। আর প্রশান্ত ভূষণ বললেন, পদের অপব্যবহার করে বেসরকারি সংস্থাকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগে সরাসরি মোদীর বিরুদ্ধে অপরাধমূলক আচরণের মামলা করা যায়।

কিন্তু বিজেপি বলছে, যেভাবে রাহুলের সুরে গলা মেলাচ্ছেন অরুণ শৌরি- যশবন্ত সিন্‌হারা, তার নেপথ্যে কংগ্রেস নেই তো? প্রাক্তন মন্ত্রীরা আরও বলছেন, ইউপিএ জমানার চুক্তি বদলানোর আগে মন্ত্রিসভার নিরাপত্তা বিষয়ক কমিটি, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক, বিদেশ মন্ত্রক, বায়ুসেনা প্রধানের সঙ্গে আলোচনা করেননি প্রধানমন্ত্রী। প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পর্রীকরও বলেছেন, তিনি কিছু জানতেন না।