সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হার্দিকের সেক্স টেপ, বিজেপির চক্রান্ত মনে করছেন পতিদার নেতা

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হার্দিকের সেক্স টেপ, বিজেপির চক্রান্ত মনে করছেন পতিদার নেতা

পতিদার আন্দোলনের নেতা হার্দিক পটেলের সেক্স টেপ ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সদ্য কংগ্রেসকে সমর্থন করার ব্যাপারে জানিয়েছেন তিনি। ঠিক তারপরই তাঁর নামে একটি সেক্স ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়। এর আগেও এই ধরনের একটি ভিডিও ছড়িয়ে তাঁকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা হয়েছিল বলে অভিযোগ নেতার। এবারও তাঁর আঙুল বিজেপির দিকেই। রাজনীতির ময়দানে কাবু করতেই বিজেপি নোংরা খেলায় মেতেছে বলে অভিযোগ তাঁর।
গুজরাট নির্বাচনের প্রাক্কালে বিজেপির বিরুদ্ধে বেশ জোর কদমে মাঠে নেমেছেন রাহুল গান্ধী। তাঁকে সমর্থন জোগাচ্ছিল গুজরাটের তিন তরুণ নেতা। তাঁর মধ্যে অন্যতম পতিদার আন্দোলেন মুখ হার্দিক প্যাটেল। শেষমেশ রাখঢাক ছেড়ে বিজেপিকে হারাতে কংগ্রেসের পক্ষেই কথা বলেছেন হার্দিক। যদিও তাঁর নিজস্ব ভোটব্যাঙ্কের কিছু বাধ্যবাধকতা আছে। তবে ভোটের অঙ্ক বেশ জটিল। গুজরাটে এই মুহূর্তে বিরোধীদের লক্ষ্য বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করা। তাই সরাসরি সমর্থন না হলেও, পরোক্ষে কংগ্রেসের পাশেই এসে দাঁড়িয়েছিলেন হার্দিক। ঠিক তারপরই তাঁর একটি সেক্স ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নেটদুনিয়ায়।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালেও হার্দিকের এরকম একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল। গুজরাট নির্বাচনের আগে সে বিষয়ে সাবধানী ছিলেন তরুণ নেতা। জানিয়েছিলেন, বিজেপি তাঁর বিরুদ্ধে চক্রান্ত করেছে। তাঁর অভিযোগ, বিজেপি নেতারা একটি ‘ডক্টরড ভিডিও’ তৈরি করেছে তাঁর নামে। সেই ভিডিও ছড়িয়েই তাঁর সম্মানহানি করার চেষ্টা চলছে। যদিও বিজেপির রাজ্য সভাপতি জিতু ভাগনানি তা নিয়ে মুখ খুলতে চাননি। কিন্তু তারপরও নেটদুনিয়ায় সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়েছে একটি ভিডিও। যেটি হার্দিকের নামেই ছড়াচ্ছে। এবং মিলছে বিভিন্ন পর্নসাইটেও। 
এরপরই ফের আত্মপক্ষ সমর্থনে এগিয়ে এলেন হার্দিক। টুইট করে নেতা জানিয়েছেন, ফের তাঁর বিরুদ্ধে ঘৃণ্য চক্রান্ত চলছে। সেক্স ভিডিও ছড়িয়ে তাঁকে কাবু করার চেষ্টা চলছে।