কাঁচকলার স্বাস্থ্যগুণ

কাঁচকলার স্বাস্থ্যগুণ

কাঁচকলা খুবই সহজলভ্য একটি সবজি। কাঁচকলায় থাকে উচ্চমাত্রার পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফেট এবং ভিটামিন এ, ভিটামিন বি৬ ও ভিটামিন সি-এর আদর্শ উৎস। বেশ কিছু জটিল রোগের চিকিৎসাতেও কাঁচকলার ব্যবহার হয়ে থাকে। জেনে নিন কাঁচকলার উপকারিতা: 

রক্তে শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখে:
কাঁচকলা খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। ডায়াবেটিস রোগের ক্ষেত্রে উপকারী কাঁচকলা। 

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে:
কাঁচকলায় উপস্থিত পটাশিয়াম শরীরে প্রবেশ করার পর ব্লাড ভেসেলের কর্মক্ষমতাকে বাড়িয়ে তোলে। সেই সঙ্গে শিরা-উপশিরায় তৈরি হওয়া চাপকে কমিয়ে ফেলে। ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কোলেস্টেরল কমায়:
কাঁচকলায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকায় তা রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। এটি আর্টারির কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে, এতে হঠাৎ করেই হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়। 

পেট ঠাণ্ডা রাখে:
প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকার কারণে কাঁচকলা হজম শক্তি বাড়ায়।যারা প্রায়ই গ্যাস-অম্বলের সমস্যায় ভোগেন, তারা কাঁচকলা খেলে উপকার পাবেন।

পটাশিয়ামের ঘাটতি দূর করে:
এক কাপ কাঁচকলায় প্রায় ৫৩১ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম থাকে, যা পেশির গঠনের উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি নার্ভ এবং কিডনির কর্মক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করে। রক্তে যাতে কোনো ধরনের ক্ষতিকারক উপাদান থাকতে না পারে, সেদিকেও খেয়াল রাখে কাঁচা কলা।

ওজন কমায়:
রেজিস্টেন্স স্টার্চ থাকে কাঁচকলায়। এটি হজম হতে সময় নেয়। ফলে বহুক্ষণ ক্ষিদে পায় না। আর ক্ষিদে না পেলে খাবার খাওয়ার পরিমাণও কমতে শুরু করে। ফলে শরীরে ক্যালরির প্রবেশ ঘটে কম। ফলে ওজন কমে।