দেগঙ্গায় জ্বরে আক্রান্ত ডাক্তারবাবুই, মৃত্যুমিছিল দীর্ঘ হচ্ছে

দেগঙ্গায় জ্বরে আক্রান্ত ডাক্তারবাবুই, মৃত্যুমিছিল দীর্ঘ হচ্ছে

চিকিৎসা করবেন ডাক্তারবাবু। কিন্তু তিনিই যদি অসুস্থ হয়ে পড়েন তাহলে কে চিকিৎসা করবে? ডেঙ্গির চিকিৎসা করতে গিয়ে ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন চিকিৎসকেরা। যে হাসপাতালে গত দু’মাস ধরে রোগী দেখছিলেন ডাক্তারবাবু, মঙ্গলবার সেখানেই জ্বর গায়ে কাঁপতে কাঁপতে ভর্তি হতে হয়েছে তাঁকে। বুধবার সেখান থেকে গাইঘাটার ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক কৌশিক রায়কে পাঠানো হয়েছে এনআরএস হাসপাতালে।
দেগঙ্গায় জ্বরে ভুগে গত দু’মাসে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেই চলেছে। সেখানকার বিএমওএইচ সুরজ সিংহের গায়েও জ্বর। দিন দু’য়েক ধরে ওষুধপত্র, ওআরএস খেয়ে এখনও কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
হাসপাতালের চিকিৎসক কৃষ্ণগোপাল শাসমল বললেন, সকাল থেকে মনে হয় হাজারখানেক রোগী দেখেছি। চেয়ার ছেড়ে উঠতে পারছি না। দু’মাস ধরে চলছে এই পরিস্থিতি। আর পেরে উঠছি না। 
গ্রামে এখন শুধু জ্বরের আতঙ্ক। জ্বরে ভুগে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনায় মানুষ আতঙ্কিত। বহু লোক শহরের দিকে আত্মীয়-পরিজনের বাড়িতে উঠছেন তল্পিতল্পা নিয়ে। দেগঙ্গা-সহ উত্তর ২৪ পরগনার গ্রামীণ এলাকায় বৃহস্পতিবারও ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে জ্বরে ভুগে।