বাড়ির কাছেই পোস্টিং ম্যাজিকের মতো কাজ করছে, গ্রামে যেতে রাজি সদ্য নিযুক্ত ডাক্তারদের ৭০%

বাড়ির কাছেই পোস্টিং ম্যাজিকের মতো কাজ করছে, গ্রামে যেতে রাজি সদ্য নিযুক্ত ডাক্তারদের ৭০%

চিকিৎসকরা রাজি হচ্ছেন গ্রামে যেতে। এরকমটা সাধরণত দেখা যায় না। তবে এখন এমনটাই হচ্ছে। কিন্তু এর কি কারণ থাকতে পারে? কারণটা হলো বদলি। এবার বাড়ির কাছে বদলি ও পোস্টিং দেওয়ার অলিখিত নীতি গ্রহণ করে অল্পবয়সি ডাক্তারদের মন জয় করলো রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর। 

রাজ্যে ক্ষমতা বদলের পর ডাক্তার নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রার্থী তালিকায় নাম থাকা ৩০-৩৫ শতাংশ শেষমেশ স্বাস্থ্য দপ্তরের চাকরিতে আসতেন। এই প্রথম স্রেফ বাড়ির কাছে পোস্টিং-এর সুযোগ মেলায় ওই তালিকায় থাকা ডাক্তারদের ৭০ শতাংশই সরকারি চাকরি করতে রাজি হলেন। এমনকী তাঁরা দূরবর্তী গ্রামেও যেতে রাজি। দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগে সদ্য নিযুক্ত ডাক্তারদের পোস্টিং দিয়ে গ্রামে যেতে বলা হত। কিন্তু তাতে ২৫-৩০ শতাংশ ডাক্তার রাজি হতেন। এবার তাঁদের স্বাস্থ্যভবনে ডেকে র্যাংকিং ধরে পছন্দসই জায়গা বেছে নিতে বলা হল। তাতেই মিলেছে ব্যাপক সাফল্য। 

প্রসঙ্গত, নতুন স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয়বাবু ও তাঁর টিম ডাক্তারদের সরকারি চাকরিতে নিয়োগ ও গ্রামমুখী করতে বাড়ির কাছে বদলি ও পোস্টিং-এর অলিখিত নীতি গ্রহণ করেছে। তার ফলও মিলছে হাতেনাতে। প্রসঙ্গত, এই নীতিতে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের হেলথ ডাইরেক্টরেটের আওতায় কর্মরত প্রায় ৮০ থেকে ৮৫ হাজার চিকিৎসক ও কর্মচারী সুবিধা পাবেন।