পদ্মাবতীতে সত্যিই ইতিহাস বিকৃত হয়েছে কি  না তার জন্য ঐতিহাসিক খুঁজছে কেন্দ্রীয় সরকার

পদ্মাবতীতে সত্যিই ইতিহাস বিকৃত হয়েছে কি  না তার জন্য ঐতিহাসিক খুঁজছে কেন্দ্রীয় সরকার

পদ্মাবতী সিনেমা নিয়ে চরম শোরগোলের পর এবার পদ্মাবতীতে আসলে কি ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে সেই বিষয়ে নিশ্চিত হতে ঐতিহাসিক খুঁডছে মোদী সরকার,সেই কাজ শুরুও প্রায় করেই দেওয়া হয়েছে বলেই খবর,জানা গেছে, কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক এবং মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রককেই সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

পদ্মাবতী নিয়ে জল্পনার পর  কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে সিনেমার পরিচালক সঞ্জয় লীলা ববশালীকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল,সেই বৈঠকে সঞ্জয় লীলা বনশালি জানিয়েছিলেন, তিনি কোনও ইতিহাস বিকৃত করেননি। কিন্তু, কমিটি গোটা বিষয়টি ছেড়ে দিয়েছিল সেনসর বোর্ডের হাতে। এরপরও পদ্মাবতী নিয়ে জট না কাটায়, এবার কেন্দ্রকেই পদ্মাবতীর বিষয়বস্তু যাচাই করতে এগিয়ে আসতে হচ্ছে। 

 

মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক যোগ্য ইতিহাসবিদদের নাম প্রস্তাব করবে, যাঁদের নিয়ে গঠিত সেন্সর বোর্ড প্যানেল পর্যালোচনা করবে ছবিটির।পদ্মাবতী নিয়ে যেহেতু বহু মহল থেকে প্রতিবাদ উঠেছে, তাই ছাড়পত্র দেওয়ার জন্য কয়েকজন ইতিহাসবিদকে তারা ছবিটি দেখাতে চায়।

বনশালীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ছবিতে ইতিহাস বিকৃত করে দেখানো হয়েছে, রাজপুত রানি পদ্মিনী ও সুলতান আলাউদ্দিন খিলজির মধ্যে একটি স্বপ্নদৃশ্য রয়েছে। যদিও ছবি নির্মাতারা অস্বীকার করেছেন এই অভিযোগ।