ভুয়ো শংসাপত্র দিয়ে ভর্তির অভিযোগে গ্রেফতার টিএমসিপির নেতা

ভুয়ো শংসাপত্র দিয়ে ভর্তির অভিযোগে গ্রেফতার টিএমসিপির নেতা

ভুয়ো শংসাপত্র দিয়ে ভর্তির অভিযোগে এক টিএমসিপি নেতাকে গ্রেফতার করল শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ। ধৃত ওই নেতার নাম জামশেদ আলি খান।অভিযোগ, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার জন্য ভরতির সময় সার্টিফিকেট জমা দিয়েছিলেন জামশেদ৷ সেই শংসাপত্র খতিয়ে দেখার সময় কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়, শংসাপত্রটি ভুয়ো৷ এরপরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ অভিযোগ খতিয়ে দেখে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ৷ আর তারপরই গ্রেফতার করা হয় তৃণমূল ছাত্রনেতা জামশেদ আলি খানকে৷

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, চলতি বছরে পার্সি ভাষা নিয়ে গবেষণার প্রবেশিকা পরীক্ষার জন্য স্নাতকোত্তরের শংসাপত্র ও প্রয়োজনীয় নথি বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দেয় জামসেদ। সেই শংসাপত্র অনুযায়ী, মিরাটে চৌধুরি চরণ সিং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৫-১৭ শিক্ষাবর্ষে ইতিহাসে স্নাতকোত্তর উত্তীর্ণ হয়েছিল জামসেদ। চলতি বছরে বিশ্বভারতীতে পার্সি ভাষায় গবেষণার জন্য আবেদন করে সে। কিন্তু, সেই শংসাপত্র ভুয়ো বলে সন্দেহ হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের।

ভর্তির পরে ক্লাসও শুরু হয়ে যায়। কিন্তু সেই শংসাপত্র ভুয়ো বলে সন্দেহ হওয়ায় শান্তিনিকেতন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত কর্মসচিব সৌগত চট্টোপাধ্যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এরপরেই নানুরের বাসিন্দা জামশেদ আলি খানকে ডেকে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ।