১ জানুয়ারি শহরে মেয়ে জন্মালে তাঁর স্নাতক হওয়া অবধি পড়াশুনা বিনামূল্যে

১ জানুয়ারি শহরে মেয়ে জন্মালে তাঁর স্নাতক হওয়া অবধি পড়াশুনা বিনামূল্যে

নতুন বছরকে এবার অন্যভাবে স্বাগত জানাতে বেঙ্গালুরু নয়া প্রয়াস, ১ জানুয়ারি শহরে মেয়ে জন্মালে তাঁর পড়শুনার খরচ চালাবে সরকার,  কন্যাসন্তানের স্নাতক হওয়া পর্যন্ত পড়াশোনার যাবতীয় খরচ মেটাবে তারা। বেঙ্গালুরুর মেয়র আর সম্পত রাজ এই পদক্ষেপ ঘোষণা করে বলেছেন, মেয়েরা বাবা-মার ঘাড়ে বোঝা নয়, এই বার্তা দিতে নতুন বছরের প্রথম দিনে শহরের যে কোনও পুর হাসপাতালে ভূমিষ্ঠ হওয়া কন্যাসন্তান স্নাতক স্তর পর্যন্ত পড়াশোনার সব খরচ পাবে। প্রথম নর্মাল ডেলিভারিতে হওয়া মেয়ের যৌথ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ৫ লক্ষ টাকাও দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে বিবিএমপি৷ সেই আমানতের ওপর সুদের টাকাতেই পড়াশুনার খরচ চলবে মেয়েটির৷ ফলে বাবা-মাকে কোনও আর্থিক দায়িত্ব নিতে হবে না সেই মেয়ের।

মেয়র বলেন, যে গর্ভবতী মহিলারা পুর হাসপাতালে সন্তান প্রসব করাতে যান, তাঁরা গরিব ও দুস্থ পরিবার থেকে আসা৷ দুর্ভাগ্যের বিষয়, তাঁদের ধারণা, মেয়ে হলে তাকে বড় করে তোলার বিরাট খরচ। তাই সে অবাঞ্ছিত, বোঝা।পুর হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা ৩১ ডিসেম্বরের ঠিক মধ্যরাত থেকে প্রথম এক ঘন্টার মধ্যে ভূমিষ্ঠ সব কন্যাসন্তানের জন্মের সময় রেকর্ড করবেন। সেখান থেকেই বোঝা যাবে, কোন মেয়ে সবার আগে জন্মেছে।
তাই ডাক্তারদের সিদ্ধান্ত, শুধু স্বাভাবিক পদ্ধতিতে জ্ন্ম হওয়া কন্যাসন্তানকেই পুরস্কার দেওয়া হবে।
বেঙ্গালুরুতে প্রায় ৩২টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র আছে, যার ২৬টিতে মহিলা ওয়ার্ড চলে।