বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে  ডিলিট উপাধি পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়

বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে  ডিলিট উপাধি পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সাম্মানিক ডি লিট প্রদান। সাহিত্য, সংস্কৃতি এবং সামাজিক ক্ষেত্রে অবদানের জন্য এ বছর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে ডি লিট দেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য তথা রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী সাম্মানিক ডিলিট তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রীর হাতে।তাঁর হাতে স্মারক ও উত্তরীয় তুলে দেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠি। এরপর নিজের বক্তব্যে ছাত্রজীবনের স্মৃতিচারণা করেন একদা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের 'সামান্য ছাত্রী' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ অনেক সুযোগ-সুবিধা থাকলেও, তাঁদের সময় যে অনেক লড়াই-সংগ্রাম করেই বড় হতে হয়েছে, সেকথা বলেন দৃশ্যতই আপ্লুত, আবেগতাড়িত মমতা। কথা বলতে বলতে গলা ধরে আসতেও দেখা যায় তাঁর।

সফল নেত্রী, তৃণমূল সুপ্রিমো, মুখ্যমন্ত্রীত্বের পদ ছাড়াও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুকুটে যুক্ত হয়েছে একের পর এক পালক ৷ তাতে নব সংযোজন এই ডি.লিট সম্মান ৷ সমাজ সেবা ও সাহিত্যে অবদানের জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই সম্মানে সম্মানিত করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ৷ উল্লেখ্য, এই প্রথম এ রাজ্যের কোনও মুখ্যমন্ত্রীকে ডি.লিট সম্মান দিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ৷

 

অথচ এই সম্মান নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি ৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন দেওয়া হবে সাম্মানিক ডি.লিট? এই প্রশ্ন তুলে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয় জনস্বার্থ মামলা ৷ সেই মামলার বুধবারের শুনানিতে ডি.লিট অনুষ্ঠানে কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি হাইকোর্ট ৷ বৃহস্পতিবারও রয়েছে এই মামলার শুনানি ৷