জওয়ানদের সন্তানদের জন্য স্কুল স্থাপন করার কথা ঘোষনা বিপিন রাওয়াতের

জওয়ানদের সন্তানদের জন্য স্কুল স্থাপন করার কথা ঘোষনা বিপিন রাওয়াতের

ভারতীয় সেনাবাহিনীর যে জওয়ানরা শহিদ হয়েছেন বা কর্তব্যরত অবস্থায় যাঁরা অক্ষম হয়ে গিয়েছেন, তাঁদের সন্তানদের জন্য দু’টি বোর্ডিং স্কুল খোলার বিষয়ে সরকার নীতিগত সম্মতি দিয়েছে বলে জানালেন সেনাপ্রধান বিপীন রাওয়াত। মোট দুটি আবাসিক স্কুল তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি৷ শিক্ষাক্ষেত্রে সহায়তার লক্ষ্যে প্রতি পড়ুয়ার জন্য দশ হাজার টাকা অনুদানের কথাও জানা গিয়েছে৷ সেনাপ্রধান এদিন বলেন, দিল্লির সংস্কৃতি স্কুলের আওতায় আবাসিক স্কুল তৈরি করা হবে৷ একটি স্কুল গড়ে উঠবে পাঠানকোটে, অপরটি হয় ভোপাল নয়তো সেকেন্দ্রাবাদে তৈরি করা হবে৷

সেনাপ্রধান আরও বলেছেন, সরকার যদি টাকা না দেয়, তাহলে সেনাবাহিনীই শহিদ বা অক্ষম হয়ে যাওয়া জওয়ানদের সন্তানদের পড়াশোনার বিষয়ে আর্থিক সাহায্য করবে। তিন-চার বছরের মধ্যেই স্কুল চালু হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এই আবাসিক স্কুলগুলি থেকে পাশ করে বেরিয়ে, সেনা নিয়ন্ত্রিত কলেজে পড়াশুনা করতে পারবে ওই সব ছাত্র-ছাত্রী৷ অনেক ক্ষেত্রে কেন্দ্রের দেওয়া অনুদানের অপব্যবহার হয় বলে অভিযোগ করেছেন সেনাপ্রধান৷ সেক্ষেত্রে সেনার পক্ষ থেকে প্রতিটি অনুদান ব্যবহারকারীর প্রয়োজন খতিয়ে দেখে, তবেই ছাড়পত্র দেওয়া হবে, যাতে শুধুমাত্র সঠিক হাতেই এই অনুদান যায়৷