ঢাকুরিয়ার স্কুলে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগে সাসপেন্ড স্কুল শিক্ষক

ঢাকুরিয়ার স্কুলে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগে সাসপেন্ড স্কুল শিক্ষক

প্রাথমিকের এক ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠল ঢাকুরিয়ার একটি সরকারি স্কুলে। এর জেরে আজ সকালে স্কুলের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন অভিভাবকরা। তাঁরা স্কুলে ভাঙচুর করেন বলেও অভিযোগ। পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। লাঠির আঘাতে এক মহিলার মাথা ফেটে যায়। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন।গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত শিক্ষক দীপক কর্মকারকে ৷ লেক থানার পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে৷ সাসপেন্ড করা হয়েছে তাকে৷ গোটা ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার৷

স্কুলে কোনওরকম কোনও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই ৷ শিশুদের নিরাপত্তার জন্য যথাযথ ব্যবস্থাও নেই ৷ এমনকী, সিসিটিভি ক্যামেরাও প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম বলে অভিযোগ জানান তিনি ৷ অভিযুক্ত শিক্ষকের গ্রেফতারের দাবিতে সরব হন অভিভাবকেরা ৷ স্কুলের বাইরে  ভাঙচুরও চালান অভিভাবকেরা ৷পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। তখন পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। লাঠির আঘাতে এক মহিলার মাথা ফেটে যায়। আহত হন আরও বেশ কয়েকজন। ঘটনাস্থানে যান কলকাতা পুলিশের DC (ESD) কল্যাণ মুখোপাধ্যায়। তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। তাঁদের দাবি, স্কুলে পুরুষ রাখা চলবে না। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে RAF নামানো হয়।