ভোজালি দিয়ে কোপ দিয়ে গলা কেটে নিলেন দুষ্কৃতিরা

ভোজালি দিয়ে কোপ দিয়ে গলা কেটে নিলেন দুষ্কৃতিরা

কোপ দিয়ে ধড় থেকে মুন্ডু আলাদা করে দিলেন দুষ্কৃতিরা, সেই কাটা মুন্ডু হাতে ঝুলিয়েই প্রকাশ্যে এলাকা ছাড়ল দুষ্কৃতীরা। ভরসন্ধ্যায় ভয়ঙ্কর ঘটনা মুর্শিদাবাদের বেলডাঙায়।মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ বাড়ি ফেরার পথে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তৃণমূল সমর্থক ফজলুর রহমানকে। পরে পাশের মাঠ থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ।

খুনের অভিযোগ কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। তৃণমূলের দাবি, চৈতন্যপুর ১ অঞ্চলে দলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন ফজলুর। পঞ্চায়েত ভোটের আগে পরিকল্পিতভাবে তাঁকে খুন করা হয়েছে। পুলিশের দাবি, একাধিক খুনের অভিযোগ ছিল ফজলুরের বিরুদ্ধে।তিনি বলেন, রাজনৈতিক শত্রুতার জেরেই তাঁর স্বামীকে খুন করা হয়েছে। মৃত ফজলু শেখ তৃণমূল কর্মী বলে দাবি করেছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। পুলিশের অবশ্য প্রাথমিক অনুমান, পারিবারিক বিবাদের জেরে খুন হন ওই ব্যক্তি। ঘটনার নৃশংসতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে স্থানীয় বাসিন্দারা।
 

পুলিস গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে। তবে কাটা মুন্ডুটি এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। চার জনের বিরুদ্ধে বেলডাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিস মনে করছে, পারিবারিক কোনও শক্রুতার জেরেই এই খুন।