রাজ্যের দুই জেলায় মধুচক্রের পর্দা ফাঁস

রাজ্যের দুই জেলায় মধুচক্রের পর্দা ফাঁস

রাজ্যের দুই জেলায় মধুচক্রের পর্দা  ফাঁস,পশ্চিম বর্ধমান ও বাঁকুড়া জেলায় মধুচক্র ব্যবসায়ীদের আপত্তিকর অবস্থায় হাতে নাতে ধরে ফেলল পুলিশ,
পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুরের বিধাননগরের বাড়ি ভাড়া দিয়ে  মালিক থাকেন দুর্গাপুর স্টিল টাউনশিপ এলাকায়। আর সেই ভাড়া বাড়িতেই চলত মধুচক্রের আসর। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, রাত বাড়লেই বাড়িতে আসতেন অচেনা যুবক-যুবতীরা।রাতে থেকে সকালে তাঁরা চলে যেতেন।আশপাশের বাসিন্দারা মধুচক্রের বিষয়টি প্রথমে বুঝতে পারেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ বাড়িটির উপরে নজর রাখতে শুরু করে।

জানা গেছে, বাড়ির মালিক দুর্গাপুর ইস্পাত কারখানার কর্মী। তিনি এক ব্যক্তিকে বাড়িটি ভাড়া দিয়েছিলেন। সেই ব্যক্তি মধুচক্র চালাত। যদিও স্থানীয় বাসিন্দাদের অনুমান বাড়ির মালিক মধুচক্রের বিষয়ে জানতেন।৪ মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়।
বাঁকুড়াতেও মধুচক্রের পর্দাফাঁস! বৃহস্পতিবার রাতে, বাঁকুড়া শহরের লালবাজার এলাকায় একটি ফ্ল্যাটে হানা দেয় পুলিশ। ১ মহিলা-সহ গ্রেফতার করা হয় ৪ জনকে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে ফ্ল্যাটে মধুচক্র চলছিল।
 

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গত তিনমাস ধরে লালবাজার এলাকায় একটি আবাসন খালি পড়ে আছে। আবাসনের মালিক থাকেন না। মাঝেমধ্যে তাঁর এক আত্মীয় সেখানে আসেন। তিনি এই মধুচক্র চালান বলে অভিযোগ। 

আপত্তিকর অবস্থায় ধরে ফেলেন এক যুবক-যুবতিকে। পরে পুলিশের হাতে তাদের তুলে দেওয়া হয়। বাসিন্দারা জানান, “এইসব অসামাজিক কাজের জন্য এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিল। তাই আমরা একত্রিতভাবে এটা বন্ধ করলাম। পুলিশ আবাসনের মালিকের খোঁজ চালাচ্ছে।”