ম্যাট্রিমনিয়া সাইটে আলাপ হওয়ার পর তরুনীর থেকে দশ লক্ষ টাকা আত্মসাত্ আইটি ইঞ্জিনিয়ারের

ম্যাট্রিমনিয়া সাইটে আলাপ হওয়ার পর তরুনীর থেকে দশ লক্ষ টাকা আত্মসাত্ আইটি ইঞ্জিনিয়ারের

বিদেশে অসুস্থ বোনের চিকিত্সার নাম করে এক তরুণীর থেকে সোয়া দশ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ। বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশের হাতে গ্রেফতার তথ্য প্রযুক্তি সংস্থার ইঞ্জিনিয়র সুমিত মুখোপাধ্যায়।

ভারত ম্যাট্রিমনি সাইটে এক তরুণীর সঙ্গে আলাপ জমান তিনি। ধীরে ধীরে সেই সম্পর্কের গভীরতা বাড়ে। ঘনিষ্ঠা হন দুজনে। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার ওই তরুণীও হয়তো মন থেকে ভাবী স্বামী ভাবতে শুরু করেছিলেন সুনীতকে। বিশ্বাসও জন্মেছিল তাঁর প্রতি। কিন্তু বিশ্বাসের পরিণতি যে এমনটা হবে, তা ভাবতেও পারেননি।

যুবতীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশের হাতে গ্রেফতার অভিযুক্ত তথ্য প্রযুক্তি সংস্থার ইঞ্জিনিয়রকে৷ তদন্তকারীদের দাবি, একটি ম্যাট্রিমনি সাইটে ওই তরুণীর সঙ্গে অভিযুক্তের আলাপ হয়েছিল৷ পরে দু’জনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। তরুণীর অভিযোগ, বিদেশে বোনের চিকিৎসা করানোর নাম করে দশ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় অভিযুক্ত৷ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পর থেকে সুমিত মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন বলেও দাবি অভিযোগকারিনীর৷ এর পরই তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে খড়দা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা৷