সালিশি সভার নিদানে দশ আঙুল কাটা গেল প্রৌঢ়ের

সালিশি সভার নিদানে দশ আঙুল কাটা গেল প্রৌঢ়ের

আজকের বিজ্ঞানের যুগেও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে এখনও অবধি কুসংস্কারের ছায়া, বীরভূমের পাড়ুইয়ে ডাইন অপবাদে প্রৌঢ়ের দশ আঙুল কেটে নিল প্রতিবেশীরা, ডাইন অপবাদে মধ্যযুগীয় বর্বরতা এই প্রথম নয়। এর আগেও নৃশংসতার বীভত্সতায় শিউরে উঠেছে মানুষ। পাড়ুইয়ের কসবা অঞ্চলের রাধাকেষ্টপুর গ্রামের বাসিন্দা ফন্দি সর্দার। অভিযোগ, তাঁর উপর কালা জাদু ভর করেছে বলে কয়েকদিন ধরেই দাবি করতে শুরু করেছিলেন স্থানীয়রা। এরপরই গ্রামে সালিশি সভা বসানো হয়।সেইমতো গ্রামের মাতব্বররা ডাইন অপবাদে যুবকের ১০টি আঙুল কেটে নেয়। এই ঘটনার পর হাসপাতালে ভর্তি যুবক। এরপরই প্রশাসন তৎপর হয়ে উঠেছে। এই ঘটনায় তল্লাশি শুরু হয়েছে অভিযুক্তদের খোঁজে। তেমনই গ্রামের মোড়লরা সালিশিসভা বসিয়ে যে নৃশংসতা ঘটিয়েছে, তাতে প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।সালিশিসভা বসিয়ে ডাইন অপবাদে ওই ব্যক্তিকে বলির নিদান দেওয়া হল। অনেক কাকুতি-মিনতিতে সেই নৃশংস নিদান রদ হলেও, ঘটে গেল আর এক নারকীয় ঘটনা।