লাভ জিহাদের জেরে কুপিয়ে জ্যান্ত  পুড়িয়া মারা হল মালদার যুবককে

লাভ জিহাদের জেরে কুপিয়ে জ্যান্ত  পুড়িয়া মারা হল মালদার যুবককে

রাজস্থানের রাজসামন্দে এক মালদার যুবককে কুপিয়ে খুন করে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল,গোটা ঘটনাটি একটি ভিডিও তুলে সেটিকে ভাইরালও করা হয়েছে,তদন্তে প্রাথমিক অনুমান লাভ জিহাদের প্রতিশোধ নিতেই এই  ঘটনাটি ঘটিয়েছে,অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ,

 

জানা গেছে, ওই যুবকের নাম মহম্মদ আফরাজ়ুল খান (৪৬)। বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের মালদা জেলার কালিয়াচক ১ ব্লকের জালুয়াবাথাল গ্রাম পঞ্চায়েতের সইদপুর গ্রামে। বিবি গুলবাহার ও তিন মেয়েকে নিয়ে ছিল আফরাজুলের সংসার। কাজের সূত্রে মাঝে মাঝেই তিনি ভিন রাজ্যে যেতেন আর সেই সূত্রে গিয়েছিলেন রাজসামন্দে

আজ অভিযুক্ত তাঁকে কোপাতে থাকে,,প্রানভিক্ষা চাইলে জোটে আরও মার,অবশেষে জ্যান্ত আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়,শুধু তাই নয় শম্ভুলাল এক বন্ধুকে দাঁড় করিয়ে গোটা ঘটনাটির ভিডিও তোলে। পরে ওই ভিডিও নিজেই সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন শম্ভুলাল। ভিডিওয় একজন মেয়েকে দেখা গেছে। শোনা যাচ্ছে, মেয়েটি শম্ভুলালের বোন। তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল আফরাজ়ুলের। সেই সম্পর্কের কারণেই যুবককে খুন করা হয়েছে। খুনের কারণ লাভ জিহাদ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

ভিডিও-তে এক তরুণীকেও দেখা যাচ্ছে। এর থেকেই লাভ জিহাদের গুজব ছড়ায়। সূত্রের খবর অনুযায়ী, অভিযুক্তের বোনের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক ছিল আফরাজুলের।

পুলিশ অর্ধদগ্ধ দেহটি উদ্ধার করেছে। খুনের ব্যবহৃত কুঠার এবং স্কুটারটিও বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় খুনের মামলা ছাড়াও, ২০১ ধারায় তথ্য প্রমাণ লোপাটের অভিযোগও দায়ের করেছে রাজনগর পুলিশ।

রাজনগর থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, আফরাজুল রাজসমান্দ-এ শ্রমিকের কাজ করত।