নিজের গায়ের রং কালো কিন্তু শিশুপুত্র ফর্সা তাই সন্দেহের বশে সন্তানকে খুন করলেন বাবা

নিজের গায়ের রং কালো কিন্তু শিশুপুত্র ফর্সা তাই সন্দেহের বশে সন্তানকে খুন করলেন বাবা

নিজের গায়ের রং কালো অথচ শিশুটি ফর্সা  কি করে হয়,এই সন্দেহের বশে সন্তানকে খুন করেই বসলেন বাবা,দক্ষিণ ২৪ পরগনার বজবজ পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। প্রতিবেশীদের দাবি,বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা হত না শেখ ফিরোজের। ছেলে হওয়ার পর তার গায়ের রং নিয়ে সন্দেহকে ঘিরে অশান্তি চরমে ওঠে।

রবিবার রাতে ছেলেকে লেপমুড়ি দিয়ে শুইয়ে রেখেছিলেন মা। অভি‌যোগ, তখনই তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে ফিরোজ। তবে বাড়ির লোকজনের দাবি, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা লাগা ও সর্দির কারণে শ্বাস আটকে মারা গেছে ওই শিশু।

এরপরেই সোমবার সকালে শিশুটিকে বাড়ির বিছানায় মৃত অবস্থায় দেখতে পান তার দাদু। স্থানীয় বাসিন্দারা শেখ ফিরোজকে ধরে মারধর শুরু করে। থানায় খবর গেলে বজবজ থানার পুলিশ গিয়ে শেখ ফিরোজকে উদ্ধার করে আটক করে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।
দিনটির তাত্পর্য বোঝার মতো বয়স হওয়ার আগেই থেমে গেল এক শিশুর জীবন। বাবার মনের কোণে শাখাপ্রশাখা ছড়িয়ে থাকা মারাত্মক সন্দেহের বিষবৃক্ষই কি তাকে বাঁচতে দিল না এই পৃথিবীতে?