দাদার চাকরি হাতাতে বৌদি ও ভাইপোকে খুন করল দেওর

দাদার চাকরি হাতাতে বৌদি ও ভাইপোকে খুন করল দেওর

ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত মা ও তাঁর দুই সন্তানের দেহ পড়ে আছে৷ প্রতিবেশীরা সেটা দেখে আতঙ্কিত৷ এমনই ঘটনায় উত্তপ্ত পাহাড়ি জেলা কালিম্পং৷ তিনজনকেই খুন করা হয়েছে৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ জলঢাকার ভাসম গ্রামে ভুজেল পরিবারের বড় ছেলে সিঙ্কোনা বাগানে কর্মরত ছিলেন। মাস কয়েক আগে মৃত্যু হয় তাঁর। দাদার চাকরি কে করবে সেই নিয়ে সমস্যার জেরেই খুন করেছে দেওর, প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, মাস কয়েক ধরে রোজই বাড়ছিল বিবাদ। শনিবার রাতে আক্রোশের বশে বউদি জনিতা ভুজেল, ভাইপো অঙ্কিত (৮) ও অমিত (৬)-কে নৃশংসভাবে কুপিয়ে খুন করে সুরিয়া। এর পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে সে।

আজ সকালে আশপাশের কয়েকজন বাড়িতে গিয়ে জনিতা ও তাঁর ছেলেকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থানে যায় পুলিশ। কালিম্পং জেলার পুলিশ সুপার অজিত সিং যাদব জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, দাদার চাকরি হাতাতেই বৌদি ও দুই ভাইপোকে খুন করেছে সুরিয়া ভুজেল। এদিকে খুনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই অভিযুক্ত সুরিয়া ভুজেলকে গ্রেপ্তার করা হয়।