ফুলবাগানে অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ খুনে গ্রেফতার স্বামী

ফুলবাগানে অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ খুনে গ্রেফতার স্বামী

গত ৩ অগাস্ট ফুলবাগানে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার এক বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় মৃতার রক্তাক্ত দেহ। আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা পূজা জৈনের মৃত্যু ঘিরে স্বভাবতই চাঞ্চল্য, উদ্বেগ ছড়াতে থাকে। সন্দেহের তির স্বামীর দিকে হলে এদিকে, পূজা খুনের পর থেকেই গা ঢাকা দিয়ে ছিল পূজার স্বামী দীপক। ছক কষেছিল শহর ছেড়ে পালাবে। সেজন্য হাওড়ার স্টেশনে সে পৌঁছেও গিয়েছিল।  ফন্দি ছিল শহর ছেড়ে পালানোর। লালবাজারের হোমিসাইড শাখার অফিসারদের নজর এড়িয়ে আর ট্রেনে ওঠা হল না দীপক জৈনের। তার আগেই অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হল তাকে।


পুলিশের প্রাথমিক তদন্ত অনুযায়ী জানা যায়, পূজার অন্তঃসত্ত্বা হওয়াকেই মেনে নিতে পারছিল না দীপক। এই নিয়ে তৃতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হন পূজা। এর আগের দু'বারই তাঁকে জোর করে গর্ভপাত করান দীপক। তৃতীয়বার গর্ভবতী হওয়ার পরই খুন হয়ে যান তিনি। পূজাকে গলা টিপে খুন করা হয় বলে জানা যায়। ফুলবাগানের ওই বাড়িতে খাটের তলা থেকে উদ্ধার হয় পূজার দেহ ।