বৌভাতের পরদিনই রহস্যজনক ভাবে উদ্ধার গৃহবধূর দেহ

বৌভাতের পরদিনই রহস্যজনক ভাবে উদ্ধার গৃহবধূর দেহ

বৌভাতের পরদিনই উদ্ধার গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ,বাথরুম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে নববধূ বেবির দেহ,পরিবারের তরফ থেকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ,আটক শশুর বাড়ির সদস্যদের,জগদ্দলের বিবেকানন্দ এলাকার বাসিন্দা বেবি ঢালির  বউভাত ছিল। আজ সকালে মৃতার বাপের বাড়ির লোকদের ফোন করে মৃত্যুর খবর দেওয়া হয়। তাঁদের বলা হয়, বেবি ঢালি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

গতরাতে শুভঙ্করের বাড়িতেই ছিল বৌভাতের অনুষ্ঠান। জগদ্দল থেকে নোয়াপাড়ায় বেবির শ্বশুরবাড়িতে তাঁর আত্মীয়রা কনেযাত্রী হিসেবে আমন্ত্রণ রক্ষা করতে এসেছিলেন। ওই অনুষ্ঠানেই বেবির বাপের বাড়ি থেকে আসা কনেযাত্রীদের অপমান করে বড় জা মৌমিতা দেবরায়।তার ওপরে সেলফি তুলতে গিয়ে ফুলদানি ভেঙে যাওয়ায় মৌমিতা দেবী তাকে কথা শোনায়,সেই অপমানেই বেবি আত্মঘাতী হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবার

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের দাবি, বৃহস্পতিবার সকালে বাথরুমে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হন বেবি। তাকে বিএনবোস হাসপাতালে নিয়েও যাওয়া হয়। তবে মৃত ঘোষণা করেন ডাক্তাররা। তবে মৃতার পরিবারের অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির লোকই খুন করেছে বেবিকে। উত্তেজিত বাপের বাড়ির লোকজনের হাতে গণপিটুনিরও শিকার হন মৃতার স্বামী-ভাসুর।