লন্ডনে বাণিজ্য বৈঠক মমতার, রাজ্যে উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরির বিষয়ে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সঙ্গে কথা হলো

লন্ডনে বাণিজ্য বৈঠক মমতার, রাজ্যে উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরির বিষয়ে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সঙ্গে কথা হলো

এবারের ব্রিটেন সফরের প্রথম বাণিজ্য সম্মেলন শুরু করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল বিকেলে ইউকে-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিলের (ইউকেআইবিসি) প্রতিনিধিদের সঙ্গে মমতার বৈঠক হয়। উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র, মুখ্যসচিব মলয় দে-সহ মমতার সঙ্গে আসা বাণিজ্য প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। ব্রিটেনের পক্ষে ছিল দিয়াজিও, গ্রিন ব্যাঙ্ক গ্রুপ, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাঙ্ক-সহ নানা সংস্থার ১৮ জন প্রতিনিধি। ছিলেন ইউ কে আই বি সি-র চেয়ারম্যান ব্রিটেনের প্রাক্তন বাণিজ্যমন্ত্রী মার্ভিন ডেভিস।
এই বৈঠক সেরেই মুখ্যমন্ত্রী যান লক্ষ্মী মিত্তলের বাড়িতে। রাজ্যে লগ্নির সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলতে। ভারতীয় সময় মধ্যরাত পেরিয়ে চলে বৈঠক।
২০১৫ সালে মমতা যখন এখানে এসেছিলেন, তখন ইউকেআইবিসি-র সঙ্গে ২২টি চুক্তি হয়েছিল। ফলে দ্বিতীয় সফরের আগে স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, সেগুলির ভবিষ্যৎ কোথায় দাঁড়িয়ে। আজকের বাণিজ্য সম্মেলনে প্রতিনিধিদের কাছে জানানো হয়, ২২টির মধ্যে ১৭টিই বাস্তবায়নের দিকে এগিয়েছে। কয়েকটির বাণিজ্যচুক্তি সই হয়েছে। কয়েকটির ক্ষেত্রে সই হয়েছে মউ। গত বারের আলোচনার ভিত্তিতে স্বাস্থ্য ও শিক্ষাক্ষেত্রেও বড় সাফল্য হয়েছে বলে রাজ্য দাবি করেছে। সরকারের বক্তব্য, রাজ্যে এমবিবিএস চিকিৎসকদের ফ্যামিলি মেডিসিন পড়ানোর ব্যবস্থা করতে রয়্যাল কলেজের সঙ্গে রাজ্যের একটি মউ স্বাক্ষরিত হয়েছে।
প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট অ্যাংলিয়া ইন্ডিয়া সেন্টার' নামে একটি উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে চুক্তি ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে। এরই সঙ্গে লন্ডনের স্কুল অব ওরিয়েন্টাল আফ্রিকান স্টাডিজ-এর (সোয়াস) সঙ্গেও প্রেসিডেন্সির মউ হয়েছে বলে সরকারের দাবি।
পশ্চিমবঙ্গে আরও একটি উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরির জন্য আজকের বৈঠকে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সঙ্গে কথা হয়েছে। নিউটাউনকে গ্রিন সিটি তৈরি করতে গত বার আলোচনা হয়েছিল। ব্রিটিশ সংস্থার সঙ্গে হিডকোর সে ব্যাপারে মউ হয়েছে বলে খবর। অমিতবাবুর বক্তব্য, ' মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে কতটা এগোনো গিয়েছে, এই সাফল্যের তালিকাই তার প্রমাণ। আগামী দিনে আরও এগোনো যাবে। '
এদিন ডেভিসকে একটি শিল্প প্রতিনিধি দল নিয়ে আগামী জানুয়ারিতে রাজ্যের শিল্প সম্মেলনে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানান মুখ্যমন্ত্রী।