গত চার মাসে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির হার

গত চার মাসে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির হার

মুদ্রাস্ফীতি হার গত চার মাসে সর্বোচ্চ৷ যাতে বেজায় অস্বস্তিতে কেন্দ্র৷ বর্তমান সময়ে পেট্রল-ডিজেলের দাম যে হারে বাড়ছে তাতে মাথায় হাত সাধারণ মানুষের৷ এর পরেও আরও কিছু বাকি ছিল৷ সেটা হলো মুদ্রাস্ফীতি৷ আজ বুধবার প্রকাশিত হল গত চার মাসের সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির সূচক৷

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, গত চার মাসের মধ্যে জুনেই সর্বোচ্চ হয়ে দাঁড়াল খুচরো বাজারে মুদ্রাস্ফীতির হার৷ গত মে মাসের মুদ্রাস্ফীতির হার বেড়ে হয় ৪.৮৭ শতাংশ৷ এপ্রিলে খুচরো বাজারে মুদ্রাস্ফীতির হার ছিল ৪.৫৮ শতাংশ৷ ঘটনাচক্রে গত বছর এপ্রিলে এই হার ছিল অনেকটাই কম৷ ২.১৮ শতাংশ৷ গত বছরের তুলনায় এবছর খুচরো বাজারে মুদ্রাস্ফীতির বৃদ্ধির পরিমাণ প্রায় ২ শতাংশের কাছাকাছি৷

ব্যক্তিগত উৎপাদন সূচক (আইআইপি) বলছে, গত মে মাসে উৎপাদন বেড়েছে ৫.২ শতাংশ৷ গত দু’মাস আগে যা ছিল ৪.৫ শতাংশের কাছাকাছি৷ খুচরো বাজারে ২০১৭ সালের তুলনায় উৎপাদন ২.৩ শতাংশ বেড়ে মার্চে দাঁড়িয়েছে ৫.১ শতাংশ৷ চলতি বছরের প্রথম চার মাসে সুদের হার অপরিবর্তিত রেখে মুদ্রাস্ফীতির পরিমাণ কমানোর চেষ্টা করেছিল ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক৷ কিন্তু, লাগাতার জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার জেরেই গত চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ হয়ে দাঁড়াল খুচরো বাজারে মুদ্রাস্ফীতির হার৷ 

অর্থনীতিবিদরা মনে করছেন, তেলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাজারে দাম বেড়েছে ফল ও সবজি-সহ বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্যের৷