আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে চেয়েছিলেন তিনি, কিন্তু ওরা দিতে দেয়নি, জানালেন সুদীপ্ত সেন

আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে চেয়েছিলেন তিনি, কিন্তু ওরা দিতে দেয়নি, জানালেন সুদীপ্ত সেন

সারদা গোষ্ঠীর কর্ণধার সুদীপ্ত সেন আমানতকারীদের টাকা ফেরাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু টাকা না ফেরত দেওয়ার জন্য তাঁর ওপর চাপ বাড়ানো হয়েছিল। এমনটাই দাবি করলেন সুদীপ্ত সেন। 

বৃহস্পতিবার বারাসতে বিশেষ আদালতে শুনানি শেষে আদালত-চত্বরে সুদীপ্ত সেন সাংবাদিকদের বলেন, ''আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে আমি প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু টাকা ফেরত না-দেওয়ার জন্য আমার উপরে চাপ সৃষ্টি করা হয়েছিল। যাঁরা সেই সময় এমন চাপ দিয়েছিলেন, তাঁদের সকলেই ঘুরে বেড়াচ্ছেন। মনে হচ্ছে, সারদা-কাণ্ডে সত্য কোনও দিনও উদ্ঘাটিত হবে না।'' 

সিবিআইয়ের বক্তব্য, তাদের জেরায় সুদীপ্ত সেন বলেছিলেন, তাঁর কলকাতা ছাড়ার পেছনে শাসক দলের কিছু প্রভাবশালী নেতার হাট ছিল। তাঁরাই তাঁকে কলকাতা ছেড়ে ছলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে নিষেধ করেছিলেন সেই তাঁরাই। ২০১৩ সালের ১৬ এপ্রিল কলকাতা ছাড়েন সুদীপ্ত। ২৩ এপ্রিল তাঁকে ও দেবযানীকে কাশ্মীরের সোনমার্গে গ্রেফতার করা হয়। সিবিআই অফিসারদের দাবি, সুদীপ্তকে গ্রেফতারের কয়েক ঘণ্টা আগে পর্যন্ত কিছু প্রভাবশালী নেতা যে তাঁর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ রেখেছিলেন, তার তথ্যপ্রমাণ তাঁদের কাছে আছে।