সূর্যকান্ত মিশ্রের জোটবার্তাকে প্রথমে কটাক্ষ করে পরে স্বাগত জানালেন সোমেন মিত্র

সূর্যকান্ত মিশ্রের জোটবার্তাকে প্রথমে কটাক্ষ করে পরে স্বাগত জানালেন সোমেন মিত্র

সোমবার সল্টলেকে একটি সভায় কর্মীদের উদ্দেশ্যে কংগ্রেসকে ভোট দেওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। বিষয়টি নিয়ে জোর জল্পনা চলছে রাজ্য রাজনীতিতে। কর্মীদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা ছিল, যেখানে বামেরা নেই, সেখানে কংগ্রেসকে ভোট দিন। আজ মঙ্গলবার সল্টলেকে দলের কর্মসূচিতে সূর্যকান্তবাবু বলেন, ''বিজেপির বিরুদ্ধে ভোটটা একত্রিত করাই আমাদের লক্ষ্য। তাই জাতীয় স্তরে যেখানে বামেদের শক্তি নেই বা প্রার্থী নেই, সেখানে কাকে ভোট দেবেন তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কংগ্রেসকেই ভোট দেবেন।''

তবে সূর্যকান্ত মিশ্রের এই মন্তব্যের পর কংগ্রেসের সাথে সিপিএম-এর জোট বাঁধা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে। লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সাথে জোট বাঁধার রাস্তা আরও পাকা করতেই কি এরকম মন্তব্য করলেন সূর্যকান্তবাবু? উঠছে প্রশ্ন। 
 
এর পরিপ্রেক্ষিতে কি বললেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র? পরের দিকে স্বাগত জানালেও প্রথমটায় বেশ কটাক্ষ করলেন সোমেন মিত্র। 

সিবিআই-এর দুই শীর্ষকর্তাকে ছুটিতে পাঠানোর বিরোধিতায় দেশ জুড়ে বিক্ষোভ শুরু করেছে বিরোধী দলগুলো। দিল্লিতে কংগ্রেস, তৃণমূল, বাম-সহ বিভিন্ন দল একসঙ্গে পথে নেমেছে। রাজ্যে রাজ্যে আলাদা করে পথে নেমেছে বিজেপি বিরোধী দলগুলো। নিজাম প্যালেসে সিবিআই অফিসের সামনে আগেই বিক্ষোভ দেখিয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেস। এ বার পথে নেমেছে বামেরাও।

সোমবার সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিয়েছিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সিপিএম। সেখানেই এই মন্তব্য করেছিলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। 

শুধু জাতীয় ক্ষেত্রে নয়, রাজ্যের ক্ষেত্রে কী ভাবে লড়তে চান তাঁরা, সোমবারের সমাবেশ থেকে সে ইঙ্গিতও সূর্যবাবু দেন। এ রাজ্যে লড়াই শুধু বিজেপির বিরুদ্ধে নয়, তৃণমূলের বিরুদ্ধেও। বলেন সূর্যকান্ত। তাই এ রাজ্যে তৃণমূল এবং বিজেপি বিরোধী সব ভোটকে একত্র করার চেষ্টা হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। বিজেপি এবং তৃণমূল বিরোধী ভোটকে এক জায়গায় আনার অর্থ যে বাম ও কংগ্রেসের এক জায়গায় আসা, তা বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয় কারওরই।

আজ মঙ্গলবার সিবিআই ইস্যুতে আগেই পথে নেমেছিল প্রদেশ কংগ্রেস। নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছিল। মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলা (শহর) কংগ্রেসের ডাকে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে ফের বিক্ষোভ হয়। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র, কংগ্রেস নেতা অরুণাভ ঘোষরা এ দিনের সভায় ছিলেন। সোমেন মিত্র সেই সভা থেকেই জবাব দেন সূর্যকান্ত মিশ্রের মন্তব্যের।

তিনি বলেন, ''হঠাৎ কালকের সমাবেশে আপনাদের কংগ্রেসকে সমর্থন করার দরদ উথলে উঠল।'' তার পরে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ''আমরা মনে করি দেশের স্বার্থে দেরিতে হলেও যদি আপনাদের বোধোদয় হয়, ভারতের এই দুঃসময়ে কংগ্রেসকে সমর্থন করা উচিত বলে যদি আপনাদের মনে হয়, তা হলে আপনাদের স্বাগত জানাব নিশ্চয়ই।'' 

কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকেও বামেদের এই অবস্থানের কথা তিনি জানাবেন বলে সোমেন মন্তব্য করেন। কিন্তু ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতা করে লড়ার পরে যে ভাবে সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন বামেরা, তা নিয়েও তিনি কটাক্ষ করেছেন বামেদের। তাঁর মন্তব্য, 'আপনাদের কাছে শুধু অনুরোধ, আপনাদের খেয়াল মতো আসবেন আর খেয়াল মতো চলে যাবেন, কংগ্রেসকে এই ভাবে প্রতারিত করবেন না।''