বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম শোনার পর ক্ষোভে ফেটে পড়লেন মমতা

বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম শোনার পর ক্ষোভে ফেটে পড়লেন মমতা

আজ বিজেপি রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে। বিহারের রাজ্যপাল রামনাথ কোবিন্দকে এই পদপ্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। এই ঘোষণার পরেই বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেদারল্যান্ডস যাওয়ার পথে দুবাই বিমানবন্দরে নেমে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম শুনে ক্ষোভে ফেটে পড়েন মমতা। বলেন, ' রাজনৈতিক কারণে এই সিদ্ধান্ত। নইলে দেশে আরও বড় বড় দলিত নেতা রয়েছেন। একটা লোককে সমর্থন জন্য তাঁকে চিনতে হবে, জানতে হবে। এ কাকে প্রার্থী করল? ' 
মমতার দাবি, এমন কাউকে প্রার্থী করা উচিত, যিনি দেশের কাজে নিয়োজিত হতে পারবেন। আগামী ২২ তারিখ বিরোধী দলগুলির শীর্ষ নেতারা এক বৈঠকে মিলিত হচ্ছেন। তারপরই রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। রাষ্ট্রপতি পদের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পছন্দের তালিকায় রয়েছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়, লালকৃষ্ণ আদবানি, এমনকী, কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজও। তবে মমতা একথাও বলেছেন, যে বিহারের রাজ্যপাল রামনাথ কোবিন্দ যে কিছুই জানেন না, এমনটা তিনি মনে করেন না। তবে রামনাথ বিজেপির দলিত শাখার প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তিনি কী করে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হতে পারেন বলে প্রশ্ন তুলেছেন মমতা। দুবাই বিমানবন্দরে মমতার বক্তব্য, ' আমি কি তৃণমূলের কাউকে প্রার্থী করতে পারি? হয় নাকি এমন? ' 
সূত্রের খবর, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু, কেন্দ্রীয় অর্থ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী অরুণ জেটলি মমতাকে ফোন করে বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীকে সমর্থন জানানোর অনুরোধ জানিয়েছেন। যদিও মমতার দাবি, চন্দ্রবাবু নায়্ডু নাকি নিজেও প্রার্থীর নাম শুনে অবাক।