পাহাড়ে তৃণমূলকর্মীদের বাড়িতে হামলা মোর্চার, ফেলা হলো পেট্রল বোমা

পাহাড়ে তৃণমূলকর্মীদের বাড়িতে হামলা মোর্চার, ফেলা হলো পেট্রল বোমা

পাহাড়ে বনধ বেআইনি। শুক্রবারই ঘোষণা করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। কিন্তু হিংসার রাজনীতি এখনো অব্যাহত সেখানে। গতকাল রাতে স্থানীয় তৃণমূল সমর্থকদের বাড়িতে চড়াও হয় মোর্চা সমর্থকরা। তাদের বাড়িতে পেট্রল বোমা ফেলা হয়েছে। এমনই অভিযোগ জানালেন পাহাড়ে তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক বিন্নি শর্মা। তাঁর অভিযোগ, রাতে মদ্যপ অবস্থায় একাধিক তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে তাণ্ডব চালায় মোর্চা সমর্থকরা। প্রথমে পাথর ও পরে পেট্রল বোমা ছোড়া হয়। অবিলম্বে দল বদলে মোর্চায় যোগ দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয় তাঁদের। পুরো ঘটনা রাতেই পুলিশকে জানানো হয়েছে। শনিবারও এ নিয়ে অভিযোগ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন বিন্নি শর্মা।
এদিকে শুক্রবার রাতে মোর্চার সহ-সম্পাদক বিনয় তামাংয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন বিনয় তামাং। তাঁর বাড়িতে ভাঙচুর করার অভিযোগ এনেছেন তিনি। কিন্তু ঘটনার পর থেকেই বেপাত্তা তামাং। প্রকাশ্যে দেখা মিলছে না মোর্চা সভাপতি বিমল গুরুংয়েরও। তবে গ্রেপ্তার করা হয় মোর্চার মিডিয়া উপদেষ্টা বিক্রম সিং রাইকে। পাহাড়ে অশান্তি ও উসকানি মূলক বার্তা ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। বিক্রমের বাবা অমর সিং রাইয়ের দাবি করেন, তাঁর ছেলে কোনও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত নয়। শনিবার অবশ্য জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দেওয়া হয় মোর্চার মিডিয়া উপদেষ্টাকে।