দমদম জেলে এবার বন্দিদের নিজস্ব সংবাদপত্র

দমদম জেলে এবার বন্দিদের নিজস্ব সংবাদপত্র

এবার বন্দীদের কাহিনী লিখবেন বন্দীরাই। বের হলো তাদের নিজস্ব সংবাদপত্র '‌অন্তরালে'। দমদম জেলে চালু হওয়া এই সংবাদপত্রের ‌সাংবাদিক থেকে শুরু করে ‌প্রুফ রিডার‌ এবং সম্পাদক, সকলেই জেলবন্দি আসামি। প্রকাশক জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট। বিনামূল্যে এই কাগজ হাতে পাবেন আসামিরা। বাংলা বছরের শেষ দিন শনিবার এটি চালু হয়েছে। 

এ বিষয়ে দমদম জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট দেবাশিস চক্রবর্তী জানিয়েছেন, 'প্রতিদিন বিকেলে এই কাগজটি প্রকাশিত হবে। ‘‌এ ফোর’‌ সাইজের কাগজে এটি ছাপা হবে। প্রথম দিন এই কাগজটি ছাপা হয়েছে দু’‌পাতায়। আগামী ২৫ বৈশাখ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিন থেকে এটি হবে চার পাতার। প্রথম দিন কাগজটি পুরোপুরি রঙিন ছাপা হয়েছে। জেলের বিভিন্ন খবর থাকবে এই কাগজে। উৎসাহ বাড়ানোর জন্য বন্দিদের কাছে বিনামূল্যে এই খবরের কাগজটি বিতরণ করা হবে।'

উল্লেখ্য, রাজ্যে এর আগে ২০১৭ সালে মেদিনীপুর সংশোধনাগারে সংবাদপত্র প্রকাশ করা হয়েছে। যার নাম ‘‌খোলা হাওয়া’‌। সেটিও ছিল বন্দিদের নিজস্ব সংবাদপত্র। কারা বিভাগের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এর আগে তিহার জেলে এই ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। আপাতত পাঁচজন সাংবাদিক ও একজন চিত্রসাংবাদিক নিয়ে এই কাগজ শুরু হয়েছে। 

সাংবাদিকদের মধ্যে বিচারাধীন এবং সাজাপ্রাপ্ত আসামিরাও আছেন। জেলের যে ক্যামেরা আছে সেই ক্যামেরায় ছবি তোলা হবে। জেলের ‘‌কম্পিউটার রুম’‌ থেকে এই কাগজ ছাপা হবে। 
কী কী থাকবে এই কাগজে?‌ জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট জানিয়েছেন, প্রতিদিন জেলের ভেতর নানা খবর, ব্যঙ্গচিত্র, ছবিতে গল্প ও অন্যান্য নানা বিষয় থাকবে এই কাগজে। প্রতি রবিবার এক পাতা অতিরিক্ত কাগজ থাকবে। কাগজটি নিয়ে আসামিরাও যথেষ্টই আগ্রহী বলে কারা বিভাগের এক কর্তা জানিয়েছেন। দমদম জেলে পুরুষ বন্দি ছাড়াও মহিলা বন্দিদেরও রাখার ব্যবস্থা আছে। কাগজের কাজে তাঁদেরও নিযুক্ত করা হয়েছে।