অসমের নাগরিকপঞ্জী নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা

অসমের নাগরিকপঞ্জী নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা

অসমের নাগরিকপঞ্জী নিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিভাস চক্রবর্তী, সুবোধ সরকার, শুভাপ্রসন্ন, আবুল বাশার, নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ি, প্রতুল মুখোপাধ্যায়রা। 

এদিন বিভাস চক্রবর্তী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ দেশে থাকার পরেও কেন দেশের নাগরিকদের ভয় দেখানো হবে, কেন বলা হবে যে তাঁদের তাড়িয়ে দেওয়া হতে পারে?‌ এমনটা তো হিটলারের জার্মানিতে হতো, এখন ট্রাম্পের আমেরিকায় হচ্ছে। ট্রাম্প যেমন এথনিক ক্লিনজিংয়ের কথা বলেছিলেন, তেমন শুদ্ধিকরণ করতে চাইছে মোদী সরকার। যেমন করে নোট বাতিলের সময় সরকার ব্যর্থ হয়েছিল, তেমন এক্ষেত্রেও হচ্ছে। 

কবি সুবোধ সরকার বলেন, আজ পর্যন্ত কোনওদিন '‌জল'‌ আর '‌পানি'‌ কে আলাদা করা যায়নি, আর যাবেও না। বিজেপি নেতার নাম না করে তিনি বলেন, '‌টিভিতে বিজেপি নেতারা বলছেন, গলাধাক্কা দিয়ে বার করে দেবেন। কতবড় সাহস, এটা কী তাঁদের বাপের জমিদারি'‌।

সাহিত্যিক আবুল বাশার শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের উক্তি উল্লেখ করে বলেন, '‌আর কতো বার বাস্তুহারা হতে হবে– এই কথাটা শীর্ষেন্দুদার মতো প্রবীণ সাহিত্যিক বলছেন। কতটা যন্ত্রণা থাকলে একথা বলা যায়। মোদি সরকার মানুষের অন্তরের কোন যন্ত্রণায় আঘাত করেছে, সেটা একবার ভেবে দেখুন'‌।