২ বরযাত্রী মিলে এক ব্যক্তিকে ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ে ফেলল

২ বরযাত্রী মিলে এক ব্যক্তিকে ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ে ফেলল

বিয়েবাড়িতে একি অঘটন। পাত্রীর বাড়ির লোককে ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ের মধ্যে ফেলে দিল পাত্রের বাড়ির এক ব্যক্তি! বিয়েবাড়িতে সকলে আনন্দে মশগুল। কেউ বিয়ে দেখছেন তো কেউ নিজেদের মধ্যে কথা বলছেন। এই সময়ে ঘটল এরকম অঘটন। দেখা গেল, এক আত্মীয় উনুনের ওপর বসানো ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ের মধ্যে পড়ে রয়েছেন। সারা শরীর ঝলসে গিয়েছে তাঁর। ঘটনাটি ঘটেছে কালনার তেহাটা গ্রামে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার।

এই ঘটনা দেখে প্রথমে সকলে ভাবলেন বুঝি এটা দুর্ঘটনা। কিন্তু না, পরে যেটা জানা গেল তাতে চক্ষু চড়কগাছ। জানা গেছে বিয়েবাড়িতে মদ খাচ্ছিল দুই বরযাত্রী। প্রতিবাদ করেছিলেন কনের বাড়ির ওই আত্মীয়। তারপরই ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ের মধ্যে ওই আত্মীয়কে ঠেলে ফেলে দেয় দুই মদ্যপ যুবক। আহত যুবক কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বুধবার তেহাটা গ্রামে আত্মীয়ের বিয়েতে গিয়েছিলেন বছর ছাব্বিশের যুবক বাবু মুর্মু। সন্ধ্যায় বরযাত্রীরা আসেন। অভিযোগ বরযাত্রীদের মধ্যে কয়েকজন মদ্যপান করছিলেন। বিয়ের আসরের মধ্যেই এ ঘটনা মেনে নিতে পারেননি বাবু মুর্মু। তাদের বাধা দিলে দুই পক্ষের মধ্যে বচসা বাধে। বিয়ের আসর থেকে সরে গিয়ে রান্নার জায়গায় গিয়ে মদ্যপান শুরু করে বরযাত্রীরা। তার সঙ্গে চিৎকার করছিল দুই বরযাত্রী বপন ও অবিনাশ মাণ্ডি। কনের বাড়ির লোকেদের সম্মানের কথা ভেবে বাবু ওই দুই যুবককে বাধা দেন। এরপরই বপন ও অবিনাশ ফুটন্ত ভাতের কড়াইয়ের মধ্যে ফেলে দেয় বাবুকে। পলাতক দুই অভিযুক্ত।